মেইন ম্যেনু

তুরাগ ভরাট বন্ধে ৪৮ ঘণ্টা সময় দিল হাইকোর্ট

high court

তুরাগ নদের মাটি ভরাট ও অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে বিআইডাব্লিউটিএ-এর চেয়ারম্যান, পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি), পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক, গাজীপুর জেলা প্রশাসক, গাজীপুর জেলার পুলিশ সুপার, তুরাগ ও টঙ্গি থানার ওসিকে এ নির্দেশ বাস্তায়ন করতে বলেছেন আদালত।

বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। এ সময় আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোনজিল মোরসেদ এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

তুরাগ রক্ষায় প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তাকে কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করছেন আদালত। একইসঙ্গে অপর রুলে তুরাগ দখল ও ভরাট বন্ধ করতে পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না এবং ভরাট অপসারণে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। নৌ সচিব ও রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানসহ ৯ বিবাদীদের উক্ত রুলের জবাব দিতে বলেছেন আদালত।

আদেশ বাস্তবায়নের বিষয়ে আগামী ২৭ নভেম্বরের মধ্যে একটি প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে ওই এলাকায় দখল এবং এ কাজে যুক্তদের নাম, ঠিকানা তালিকা করতে গাজীপুর জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ জানান, ‘তুরাগকে মৃত্যু ঘোষণা সময়ের ব্যাপার’ শিরোনামে গত ৬ নভেম্বর ইংরেজী দৈনিক ডেইলি স্টারে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনের সূত্র ধরে হিউম্যান রাইটস পিস ফর বাংলাদেশ রিট আবেদন করে। ওই আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে আদালত এ আদেশ দেন।



(পরের সংবাদ) »