মেইন ম্যেনু

থাপ্পড় মেরে মালিককে ৫০০ নোট ভর্তি মানিব্যাগ ফেরত দিল চোর!

untitled48-630x420

আছে দূষণের সমস্যা। জুড়ে বসেছে মোদি সরকারের ৫০০ আর ১০০০ টাকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্তও যার জের সমস্যার চেয়ে কম কিছু নয়। এই দুই পর্ব মিটলে ভারতের অনেকে মাথা ঘামাচ্ছেন আমেরিকার নির্বাচন নিয়েও। সব মিলিয়ে সমস্যা অনেকগুলোই, একটা নয়! তার পরেও নয়ডাবাসী বিকাশ কুমার যে সমস্যার মুখে পড়লেন, তার সঙ্গে কোনও কিছুরই তুলনা চলে না।

খবর বলছে, নয়ডার শুনশান রাস্তায় দুর্বৃত্তদের হাতে পড়েছিলেন বিকাশ। পরের ব্যাপারটা যদিও আর নিছক পকেটমারিতে আটকে রইল না। দুর্বৃত্তরা মানিব্যাগ ছিনিয়ে নিয়েও ফেরত দিয়ে গেল। থাপ্পড়ের সঙ্গে ব্যাগে ১০০ টাকার নোট না থাকার জন্যই এমন হেনস্তা হতে হল তাঁকে।

জানা গিয়েছে, ওই দিন রাত এগারোটার সময় বাড়ি ফিরছিলেন বিকাশ। “রাস্তা ফাঁকাই ছিল। আর আমার মাথায় হানা দিচ্ছিল দুশ্চিন্তা। ৫০০-এর নোটগুলো নিয়ে এখন কী হবে! তখনও জানতাম না এই নোটগুলো আমায় বিপদের মুখে ফেলতে চলেছে”, জানিয়েছেন বিকাশ।

তার পর? বলে চলেছেন তিনি, “একটু পরে দেখলাম একটা বাইক আসছে। সেটায় দুজন আরোহী ছিল। তারা আমার খুব কাছে এসে হ্যাঁচকা চানে পকেট থেকে মানিব্যাগটা বের করে নিল। তার পর চলে গেল বাইক হাঁকিয়ে!”

“কিন্তু একটু পরে ফিরেও এল! ফের শুনতে পেলাম মোটরবাইকের আওয়াজ। এবারে তারা এসে আমায় একটা করে থাপ্পড় মারল! খারাপ গালাগালিও দিল ব্যাগে একটাও ১০০ টাকার নোট না থাকার জন্য”, বক্তব্য বিকাশের!

বিকাশ এমন হেনস্তার শিকার হওয়া সত্ত্বেও পুলিশে খবর দেননি। তবে সংবাদমাধ্যমে খবরটি প্রকাশিত হওয়ার পরে পুলিশ নিজে থেকেই যোগাযোগ করেছে বিকাশের সঙ্গে। ঘটনাটির তদন্ত হবে, এই আশ্বাস দিয়ে গিয়েছে! কিন্তু, প্রশ্নটা উঠছে অন্য জায়গায়! নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত সাধারণ মানুষকে যে এমন বিপদে ফেলবে, তা কি কেউ কল্পনা করতে পেরেছিলেন?-সংবাদ প্রতিদিন