মেইন ম্যেনু

দিনাজপুরে নকল ওষুধ তৈরী’র মহাগুরু স্বাধীন আবারও স্বস্ত্রীক ধরা খেয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার,দিনাজপুর থেকেঃ আবারও স্বস্ত্রীক ধরা খেয়েছে দিনাজপুরের কৃখ্যাত নকল ওষুধ তৈরী’র মহাগুরু সাদেকুল ইসলাম স্বাধীন (৪৫)। তার স্ত্রী মাহফুজা বেগমকে ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড করে ছেড়ে দিলেও এবার স্বাধীনকে দেড় বছরের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত । মঙ্গলবার সন্ধে সাড়ে ৬ টায় দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ আশরাফ এবং কাহারোল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ( ইউএনও) আসলাম মোল্লার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার দশমাইল এলাকায় অভিযার চালায়।

এ সময় দিনাজপুরের কৃখ্যাত নকল ওষুধ তৈরী’র মহাগুরু সাদেকুল ইসলাম স্বাধীন (৪৫) এর “ বেঙ্গল আয়ুবের্দিক লিঃ” নামে নকল ওষূধের কারখানা আবিস্কার করে। সেখানে জব্দ করা হয় নানা ধরণের নকল ওষূধ, ওষুধ তৈরী’র সঞ্জামসহ বেশ কিছু জিনিসপত্র। এ সময় হাতে নাতে স্ত্রী মাহফুজা বেগম ও নকল ওষুধ তৈরী’র মহাগুরু সাদেকুল ইসলাম স্বাধীন (৪৫) ধরা পড়ে। তার স্ত্রী মাহফুজা বেগমকে ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড করে ছেড়ে দিলেও স্বাধীনকে দেড় বছরের সশ্রম কারাদন্ড দেয় ভ্রাম্যমান আদালত ।

এর সত্যতা স্বীকার করেছেন কাহারোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর আলী সরকার। তিনি জানান, দিনাজপুরের কৃখ্যাত নকল ওষুধ তৈরী’র মহাগুরু সাদেকুল ইসলাম স্বাধীন (৪৫) এর বাড়ি দিনাজপুর শহরের চাউলিয়াপট্রি এলাকায়। তার পিতার নাম হবিবর রহমান হবি। তার পিতা পেশায় একজন দুল-চুড়ি’র ফেরিওয়ালা হলেও এখন মুদির দোকান করেন নিজ বাড়িতে। সাদেকুল ইসলাম স্বাধীন টোকাই থেকে কৃখ্যাত নকল ওষুধ তৈরী’র মহাগুরুতে পরিনত হয়েছে। দেশব্যাপী রয়েছে তার নকল ওষুধ তৈরী ও বিক্রির নেটওয়ার্ক। এর আগে সে তার নিজ বাড়ি চাউলিয়াপুট্রিতে ৩ বার, সেখানে ভাড়াবাসায় একবার, রাজবাটী এলাকার ভাড়া বাসায় দু’বার, রাজধানী ঢাকাতে দু’বার ধরা পড়ে নকল ওষূধ তৈরী এবং বিপনের সময়। পুলিশ,ডিবি পুলিশ,বিজিবি,র‌্যাব,সেনাবাহিনীসহ সরকারের সব নিরাপত্তা বাহিনী হাতে বার বার ধরা পড়লেও অবৈধ খুটির জোরে ছাড়া পেয়ে যায় সে। নকল ওষুধ তৈরী’র মহাগুরু সাদেকুল ইসলাম স্বাধীন (৪৫) এ অবৈধ ব্যবসা করেই এখন কোটি কোটি টাকার মালিক। তার শহরে ৩/৪টি বাড়ি, বিরলে লিচু-আমের বাগান এবং অনেক ব্যাংক-ব্যালেঞ্জ রয়েছে। স্বাধীন অল্প সময়ে বেশী টাকার মোহে বার বার ধরা পরার পরেও ছাড়তে পারেন না এই অবৈধ ব্যবসা। আবার ধরা পরার পরও অবৈধ টাকার জোরে ছাড়া পেয়ে যায় সে।