মেইন ম্যেনু

দীর্ঘমেয়াদী ব্যথা দূর করতে সাহায্য করবে যাদুকরী এই পানীয়টি

আপনার কী ঘাড়ে, জয়েন্টে, পায়ে বা পিঠে ব্যথা আছে? লক্ষ লক্ষ মানুষ এ ধরণের ব্যথায় ভুগছে যা দূর হয়না খুব সহজে। এমন একটি পানীয় আছে যা প্রতিদিন সকালে পান করলে এই ধরণের ব্যথা দূর হয়ে যাবে এবং এই পানীয়টি তৈরি করতে মাত্র ৩০ সেকেন্ড সময় লাগবে। যাদুকরী এই পানীয়টির বিষয়েই জানবো আজ।

এই যাদুকরী পানীয়টি তৈরি করা হয় খাওয়ার উপযোগী জেলাটিন ও ঠান্ডা পানি দিয়ে। এই পানীয়টি দীর্ঘমেয়াদী ব্যথা দূর করতে সাহায্য করবে অবশ্যই। তবে যদি তীব্র ক্রনিক পেইন হয় তাহলে অবশ্যই ডাক্তার দেখাতে হবে।

পানীয়টি তৈরির উপাদান সমূহ

– ১৫০ গ্রাম ভোজ্য জেলাটিন

– ঠান্ডা পানি

পানীয়টি তৈরির প্রস্তুত প্রণালী

– ১ গ্লাস ঠান্ডা পানির মধ্যে ৫ গ্রাম ভোজ্য জেলাটিন মেশান।

– দ্রবণটি ভালোভাবে নেড়ে সারারাত ফ্রিজে রেখে দিন।

– স্বাদ বৃদ্ধির জন্য মধু, দই, ফলের জুস যোগ করতে পারেন।

যেভাবে গ্রহণ করবেন

– ৩০ দিন এই জেলাটিনের দ্রবণ সকালে পান করুন।

– ১ সপ্তাহ পরই আপনি এর প্রভাব বুঝতে পারবেন। এ কারণেই শেষ পর্যন্ত পান করুন। এর ফলে জেলাটিনের খনিজ লবণ আপনার শরীরে প্রবেশ করবে।

– যদি ব্যথা ফিরে আসে তাহলে ৬ মাস পরে আবার এই পদ্ধতিটি অনুসরণ করা শুরু করুন।

এই পানীয়টিকে যাদুকরী বলা হয় জেলাটিনের এমাইনো এসিডের কারণে। এটি টেন্ডন, কার্টিলেজ, হাড় এবং কোলাজেনের টিস্যুর মেরামতে সাহায্য করে। এছাড়াও এটি লিগামেন্টকে শক্তিশালী করে এবং ইমিউন সিস্টেমের উন্নতি ঘটায়। নিয়মিত জেলাটিনের পানি পান করলে অষ্টিওপোরোসিস এবং অষ্টিওআরথ্রাইটিস প্রতিরোধ করে।

জেলাটিন কী ?

জেলাটিন একধরণের প্রাণীজ প্রোটিন। যা ওজন কমানোর জন্য, অষ্টিওআরথ্রাইটিস, রিউমাটয়েড আরথ্রাইটিস এবং অষ্টিওপোরোসিস ভালো করতে সাহায্য করে। কেউ কেউ এটি হাড়, জয়েন্ট এবং নোখকে শক্তিশালী করতে ব্যবহার করে। চুলের মানের উন্নতিতে সাহায্য করে জেলাটিন। ব্যায়ামের পরে এবং খেলাধূলা সম্পর্কিত আঘাত সেরে ওঠার সময়কে সংক্ষিপ্ত করে জেলাটিন। খাদ্য, কসমেটিক এবং ঔষধ তৈরিতেও ব্যবহার হয় জেলাটিন।

জেলাটিন কীভাবে কাজ করে?

জেলাটিনে কোলাজেন থাকে, যা অস্থি ও তরুণাস্থি গঠনের একটি উপাদান। এ কারণেই এটি আরথ্রাইটিস ও জয়েন্টের ব্যথা দূর করতে পারে।