মেইন ম্যেনু

দুই শিশু হত্যা: আটকের পর বাবার ‘দায় স্বীকার’

সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলায় দুই সন্তানকে হত্যায় সন্দেহভাজন বাবা ছাতির আলীকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যায় হত্যার দুই দিন পর আজ সকালে তিনি বাড়ি ফিরে আসার স্থানীয়রা বিষয়টি জানায় পুলিশকে। এরপর পুলিশ এসে নিয়ে যায় ছাতির আলীকে। পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় তাদের কাছে দায় স্বীকার করেছেন ছাতির।

ছাতির আলীর ভাতিজা শাহেদ আহমদ রুহিন জানিয়েছেন, সকালে চিন্তামনি গ্রাশে নিজ বাড়িতে ফিরে আসেন ছাতির। এ সময় ছাতিরকে উদভ্রান্তের মতো দেখাচ্ছিল। তিনি অভুক্ত অবস্থায় ছিলেন। তাকে প্রথমেই খাওয়ানো হয়। এরপর তার ফেরার বিষয়টি ওসমানীনগর থানাকে জানানো হয়।

পুুলিশ জানিয়েছে, ছাতির তার দুই সন্তানকে হত্যার বিষয়টি তাদের কাছে স্বীকার করলেও কেন তিনি এই খুন করেছেন, সে বিষয়ে এখনও বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়নি।

ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর আওয়াল চৌধুরী জানান, ‘আমরা আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। এ বিষয়ে তথ্য পাওয়ার পর আপনাদেরকে বিস্তারিত জানাবো হবে।’

সোমবার দুপুরে ছাতির আলী তার দুই শিশুপুত্র রুজেল আহমদ ও মামুন আহমদকে নিয়ে হাওরে মাছ ধরতে যান। সন্ধ্যার ঠিক আগ মুহূর্তে শিশু দুটির মরদেহ পাওয়া যায়। তাদের শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। এই ঘটনার পর থেকে ছাতির আলী নিখোঁজ ছিলেন।

পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, ছাতির আলী ও তার স্ত্রী নূরবী বেগমের মধ্যে প্রায় ৬ মাস ধরে মনোমালিন্য চলছিল। এর জেরেই খুন হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন স্বজনরা।