মেইন ম্যেনু

দুর্গাপুরে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

unnamed-23

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি: নেত্রকোনায় দুর্গাপুর উপজেলার নাজিরপুর চৌরাস্তা মোড়ে গত সোমবার সন্ধ্যায় সন্ত্রাসী মাজহারুল ও তাঁর দলবল নিয়ে দুর্গাপুর পৌর যুবলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম মোড়লের উপর অতর্কিত হামলার প্রতিবাদে দুর্গাপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় মঙ্গলবার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, সন্ত্রাসী হামলায় আহত যুবলীগ সভাপতি ও ড্রেজার বালু উত্তোলন ব্যাবসায়ী সমিতি নজরুল ইসলাম মড়ল। তিনি বলেন, সন্ত্রাসী মাজহারুল তাঁর দলবলসহ প্রকাশ্যে পিস্তল নিয়ে আমার উপর হামলা চালায়। বাজারে আতংক ছড়ানোর জন্য ৪টি ফাঁকা গুলি করে। তাঁর বাহিনীর তান্ডবে নাজিরপুর মোড়ে ওয়ার্কসপ ব্যাবসায়ী হযরত আলী, রিপন দে, আমজত খাঁ সহ একাধিক ব্যাক্তি আহত হয়।

দুর্গাপুরে সোমেশ^রী নদীতে ড্রেজার বসানো ও বাইপাস রাস্তাকে কেন্দ্র করে আধিপত্য বিস্তারের বিষয়ে এ হামলা সংঘটিত হয় বলে জানান নজরুল ইসলাম। জায়গা দখলের বিরুদ্ধে কথা বলায় সন্ত্রাসী মাজহারুল গ্রুপ নজরুলের উপর অতর্কিত হামলা বলে উল্লেখ করেন। দিনের বেলায় একাধিক পিস্তল প্রদর্শন ফাঁকা গুলি ছোঁড়াতে তাৎক্ষনিক ভাবে সকল ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়।

আতংকে ছোটাছুটিতে বেশ কয়েকজন পথচারি আহত হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত নজরূল ইসলাম এর স্ত্রী আওয়ামীলীগ নেত্রী ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ পারভীন আক্তার বলেন, প্রকাশ্য দিবালোকে আগ্নেয়াস্ত্রের মহড়ার মুল উদ্দেশ্য যুবলীগ সভাপতিকে হত্যা করা। মাজহারুলের নামে একাধিক সন্ত্রাসী ঘটনার মামলা রয়েছে।

তাঁর চাচা পৌর মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে নিয়ন্ত্রনহীন ভাবে বেপরোয়া হয়ে পড়েছে মাজহারুল। বাজারে প্রকাশ্য দিবালোকে আগ্নেয়াস্ত্র‘র মহড়ায় আমরা আতংক ও জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আমরা সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে দুর্গাপুরের শান্তিপ্রিয় জনগনের জানমালের নিরাপত্তায় সহ প্রশাসনের জরুরী হন্তক্ষেপ ও দোষীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী করছি।

সংবাদ সম্মেলনের অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান পারভীন আক্তার, আহত হযরত আলী ও রিপনদে সহ প্রত্যক্ষদর্শী ব্যাবসায়ীবৃন্দ।