মেইন ম্যেনু

দুর্দান্ত বোলিংই শীর্ষে তুললো মাহমুদউল্লাহর খুলনাকে!

mahmudulalh-khulna20161114112310

বিপিএলের গত আসরে ছিল না খুলনা। এবার নতুন নাম (খুলনা টাইটান্স) নিয়ে চতুর্থ আসরে খেলতে এসেছে তারা। সাদামাটা দল নিয়েই লড়াইয়ে নেমেছে খুলনা। কারণ এবার খুব বেশি নামিদামি ক্রিকেটার দলে টানেনি। এই দল নিয়েও দারুণ লড়াই করেছে তারা। আপাতত পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই রয়েছে তারা। দুর্দান্ত বোলিং-ই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দলকে সবার ওপরে তুলেছে!

এ পর্যন্ত চার ম্যাচ খেলেছে খুলনা। তিনটিতে জয় পেয়েছে, আর একটি ম্যাচে হেরেছে। মাহমুদউল্লাহর দলের সংগ্রহ ৬ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলে ৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইস। সমসংখ্যক ম্যাচে (৩) চার পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে রয়েছে যথাক্রমে রংপুর রাইডার্স ও বরিশাল বুলস।

এদিকে খুলনা টাইটান্স যে তিনটি ম্যাচে জয় পেয়েছে, ওই ম্যাচগুলোতে তাদের ইনিংস খুব একটা লম্বা নয়। ইনিংস তিনটি থেমেছে ১৩৩, ১২৭ ও ১৪৪ রানে। তিনটি ম্যাচই খুলনা জয় পেয়েছে বোলারদের দুর্দান্ত বোলিং নৈপুণ্যে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে ১৩৩ রানের পুঁজি সংগ্রহ করেছিল খুলনা। শেষ ওভারে মাহমুদউল্লাহ ম্যাজিকে ৩ রানে জয় তুলে নিয়েছে তারা।

নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচটা অবশ্য ভালো কাটেনি খুলনার। মাত্র ৪৪ রানেই অলআউট হয়েছিল তারা। যা বিপিএলের ইতিহাসে সর্বনিম্ন রানের লজ্জার রেকর্ডও। ওই ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের কাছে ৯ উইকেটে হেরে গিয়েছিল তারা। এই রান নিয়ে লড়াই করাটা বড্ড কঠিনই।

বিপিএলের অষ্টম ম্যাচ ও নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ফের ঘুরে দাঁড়ায় খুলনা। চিটাগাং ভাইকিংসের বিপক্ষে মাত্র ১২৭ রানের সংগ্রহ নিয়েও ম্যাচটিতে জয় পেয়েছে ৪ রানে। শেষ ওভারে ছিল বোলার মাহমুদউল্লাহর সেই ভেলকি।

আর নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে মাশরাফি বিন মর্তুজার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ১৪৪ রান করে খুলনা। শফিউল ইসলাম ও জুনায়েদ খানের অসাধারণ বোলিং নৈপুণ্যে মাহমুদউল্লাহর দল জয় পায় ১৩ রানে।

তবে খুলনা টাইটান্সে হাইপ্রোফাইলের বোলার নেই! পাকিস্তানি পেসার জুনায়েদ খান ভালো বল করছেন। তবে জাতীয় দলে তিনি উপেক্ষিত রয়েছেন। বাংলাদেশ জাতীয় দলে পেসার শফিউল ইসলামের অবস্থানও নড়বড়ে! গত আসরে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী কেভিন কুপার এবার খেলছেন খুলনার হয়ে।

আট বছর পর জাতীয় দলে ডাক পাওয়া মোশাররফ হোসেন রুবেল আছেন মাহমুদউল্লাহর দলে। অলরাউন্ডার শুভাগত হোমও হাত ঘুরাচ্ছেন খুলনার হয়ে। মাহমুদউল্লাহ নিজেও বোলিং করছেন। এসব বোলার নিয়েও বেশ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন খুলনা অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।



« (পূর্বের সংবাদ)