মেইন ম্যেনু

‘নগ্নদৃশ্য মানেই তো পর্নোগ্রাফি নয়’

123908pujarini_kalerkantho_pic

প্রথম ছবি ‘কুহেলি’ তে সাহসী দৃশ্যে অভিনয় করেছেন কলকাতার অভিনেত্রী পূজারিনি ঘোষ। দেবারতি গুপ্তের ছবিটিতে তার বোল্ড লুক দেখে প্রশংসা করছেন অনেক মানুষ। তেমনি আছে খোলামেলা দৃশ্যের সমালোচনা। পূজারিনি এসব নিয়ে অবশ্য ভাবেন না। তার মতে একজন নতুন অভিনেত্রী এসেই এত সাহস দেখাচ্ছে এটা নিয়ে তো সমালোচনাই হবে।

বোল্ড সিন নিয়ে তার কোনো হীনমন্যতা নেই। বরং তুলে ধরলেন পাল্টা যু্ক্তি। তার মতে, ”আমাদের সিনেমা তো রিয়েল লাইফ থেকেই নেওয়া হয়। রিয়েল লাইফে বিয়ে হলে কি আমি বরের সঙ্গে শোব না? তাতে হয় আনন্দ হবে, না হয় দুঃখ। তা হলে এটা দেখালে আপত্তি কোথায়? কই ইংরেজি সিনেমা দেখতে গেলে তো এ সব আমাদের মনে হয় না? তা হলে এখানে কেন আমরা শুধু ইরোটিক পার্টটা নিয়ে কথা বলি।”

এই শক্ত অবস্থান নেওয়ার পাশাপাশি তিনি জানিয়ে দিলেন চরিত্রের প্রয়োজনে তিনি আরও বোল্ড হতে পারবেন। পূজারিনি বলেন, ”যদি চরিত্রের জন্য ইন্টিমেট সিন ইমপরট্যান্ট হয়, এসথেটিক্যালি শুট করা হয় তা হলে কোনো আপত্তি নেই। কারণ জোর করে তো কিছু করা হচ্ছে না। এটা তো আর পর্নোগ্রাফি নয়।”

সঙ্গে রইল দর্শকদের উদ্দেশে কিছু সমালোচনা, ‘দেখুন এই মুহূর্তে দর্শক ন্যুডিটি নেয় না। লিকড ভিডিও দেখে মজা পায়। কিন্তু ফ্যামিলির সকলকে দেখতে বারণ করে। ফলে দর্শকদের সেন্টিমেন্টকে আঘাত না করে যতটা করা সম্ভব করব। বেটার অপরচুনিটি পেলে আরও কয়েক বছর পরে হয়ত আমার আজকের কথাগুলোই চেঞ্জ হয়ে যাবে। ইট ডিপেন্ডস দ্য সিচুয়েশন হয়্যার আই অ্যাম,’ বলেন পূজারিনি।