মেইন ম্যেনু

নাসিরনগর হামলার ঘটনায় বিএনপি নেতা গ্রেপ্তার

বাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় নাসিরনগর সদর ইউনিয়ন পরিষদ বিএনপি সভাপতি আমিরুল চকদারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার ভোরে নাসিরনগর সদরের নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জাফর গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তাকে রিমান্ডে নেওয়ার জন্য আবেদন করা হবে কি না-জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে এখনই কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এটি পরবর্তীতে জানানো হবে।

নাসিরনগরে হামলার ঘটনায় এ পর্যন্ত মোট ৫টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে তাকে কোন মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় বিএনপির এ নেতাসহ মোট ৮৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে এবারই প্রথম কোন রাজনৈতিক দলের নেতাকে গ্রেফতার করা হলো।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নাসিরনগরে হামলার ঘটনায় বিএনপির যে দুই জনের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে বলে পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে তার মধ্যে আমিরুল চকদারের নাম নেই। তবে নাসিরনগর ইউনিয়ন বিএনপি সহ-সভাপতি জামাল উদ্দিন, হরিপুর ইউনিয়ন যুবদলের সহ-সভাপতি বিল্লাল হোসেনসহ ১৮ জন বিএনপি নেতাকর্মীর নাম রয়েছে। অবশ্য বিএনপির পক্ষ থেকে এ তদন্ত প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও মন্ত্রীকে বাঁচানোর জন্যই বিএনপি নেতাকর্মীদের জড়িয়ে এ তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, পবিত্র কাবা শরীফের অবমাননার অভিযোগে গত ৩০ অক্টোবর নাসিরনগরে মন্দিরসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের ঘরবাড়িতে হামলা, ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।