মেইন ম্যেনু

নিউজিল্যান্ড সিরিজে খেলতে পারবেন মুস্তাফিজ?

গত আগস্টে অস্ত্রোপচারের পর থেকেই পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় রয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। আশা করা হয়েছিল, ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সিরিজের আগেই পুরোপুরি ফিট হয়ে যাবেন তিনি। তাই কিউইদের বিপক্ষে সিরিজের দলে রাখাও হয় তাঁকে। দলে রাখা হলেও কাটার-মাস্টার আসন্ন এই সিরিজে খেলতে পারবেন কি না, তা নিয়ে নিয়ে এখন চলছে নানান আলোচনা।

জাতীয় দলে নতুন ফিজিও যোগ দেওয়ার পরই মুস্তাফিজকে নিয়ে বেরিয়ে এসেছে নতুন তথ্য। ম্যাচ খেলার মতো ফিট হতে এই বাঁ-হাতি পেসারের সময় লেগে যেতে পারে জানুয়ারি পর্যন্ত।

বুধবার ইংলিশ ফিজিও ডিন কনওয়ে জাতীয় দলের নতুন ফিজিও হিসেবে যোগ দিয়েছেন। ইংল্যান্ড দলের সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করা এই ফিজিও বাংলাদেশে তাঁর প্রথম কর্মদিবসে কাজ করেছেন মুস্তাফিজের সঙ্গে।

মুস্তাফিজ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তাঁকে আমি যতটুকু দেখেছি, সিরিজ শুরু আগে হয়তো পুরো শক্তি দিয়ে বল করতে পারবে সে। কিন্তু ম্যাচ খেলার মতো ফিট হতে তাঁর জানুয়ারি পর্যন্ত সময় লেগে যেতে পারে। কারণ নিউজিল্যান্ডে ভিন্ন পরিবেশে বল খুব একটা সহজ হবে না।’

আগামী ২৬ ডিসেম্বর ওয়ানডে দিয়ে শুরু হবে নিউজিল্যান্ড সিরিজ। ২৯ ও ৩১ ডিসেম্বর সিরিজের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ওয়ানডে। ৩, ৬ ও ৮ জানুয়ারি সিরিজের তিনটি টি-টোয়েন্টি এবং দুটি টেস্ট হবে ১২-১৬ এবং ২০-২৪ জানুয়ারি।

মুস্তাফিজ পুরোপুরি ফিট হতে যদি সময় লাগে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত, সেক্ষেত্রে নিউজিল্যান্ড সিরিজে তিনি খেলতে পারবেন কি না, তা নিয়ে সংশয় রয়েছেই। বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট এই বাঁ-হাতি পেসারকে নিয়ে ঝুঁকি নেবে কি না, সেটাই এখন দেখার।

গত আগস্টে লন্ডনের বুপা ক্রমওয়েল হাসপাতালের শল্যবিদ অ্যান্ড্রু ওয়ালেসের অধীনে মুস্তাফিজের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়। এ সময় মুস্তাফিজের পাশে থাকতে লন্ডনে গেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান ও চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।