মেইন ম্যেনু

নোট বদলাতে লাইনে প্রধানমন্ত্রীর মা

1479195812

ভারত সরকার ৮ নভেম্বর পুরোনো ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বাতিল করেছে। এরপর থেকে ভারতজুড়েই নোট বদলে নেওয়ার হিড়িক পড়েছে। এ জন্য প্রতিদিনই দেশটির ব্যাংক ও এটিএম বুথগুলোর সামনে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে অনেকে নোট পরিবর্তন করছেন। এবার সেই লাইনে দাঁড়িয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মা ৪ হাজার ৫০০ রুপির পরিবর্তন করেছেন।

টিএএন ও এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর মা হওয়া সত্ত্বেও বাড়তি কোনো সুবিধা পাননি মোদির ৯৫ বছর বয়সী মা হীরাবেন। সাধারণ মানুষের মতোই লাইনে দাঁড়িয়েই পুরোনো রুপি বদলে নিয়েছেন তিনি। আজ মঙ্গলবার সকালে গুজরাটের আহমেদাবাদের গান্ধীনগরে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার এক শাখায় হুইলচেয়ারে বসে সাধারণ অন্য মানুষের লাইনে দাঁড়ান হীরাবেন। এরপর তিনি সাড়ে চার হাজার রুপির পরিবর্তন করেন। ব্যাংক-কর্মীরা তাঁর হাতে খুচরা নোট তুলে দেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর মা হীরাবেন আত্মীয়র সাহায্যে হুইলচেয়ারে বসে ব্যাংকে আসেন। তাঁর কাছে ছিল ৫০০ রুপির নয়টি নোট। ব্যাংক কাউন্টারে গিয়ে তিনি প্রয়োজনীয় নথিতে সই করে ৪ হাজার ৫০০ নতুন রুপিতে নেন।

ভারতের ব্যাংকগুলো গত কয়েক দিনে গ্রাহকদের ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বদলে দিচ্ছে। চার দিন ধরে বাজারে নতুন দুই হাজার রুপির নোট ছাড়া হয়েছে।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ৮ নভেম্বর ৫০০ ও ১০০০ রুপির পুরোনো নোট বাতিল ঘোষণা করে। দেশজুড়ে পরদিন ব্যাংক এবং দুদিন এটিএম বুথও বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়, যাতে ব্যাংকগুলো কম মূল্যমানের মুদ্রাগুলো মজুত করে গ্রাহকদের বাতিল হওয়া ৫০০ ও ১০০০ রুপি বদলে দিতে পারে।

গ্রাহকেরা প্রত্যেকে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত সপ্তাহে সর্বোচ্চ ২০ হাজার রুপি বদলাতে পারবেন।
ইতিমধ্যে ৫০০ রুপি মূল্যমানের নতুন ৫০ লাখ নোট বাজারে ছাড়া হয়েছে এবং আগামীকাল বুধবারের মধ্যে আরও ৫০ লাখ নোট বাজারে আসছে।