মেইন ম্যেনু

নয়াদিল্লিতে অফিসের জন্য জমি পাচ্ছে না তৃণমূল

সাত বছর আগে আবেদন ও আগাম টাকা পরিশোধ করেও রাজধানী নয়াদিল্লিতে অফিস করার জমি পাচ্ছে না পশ্চিমবাংলার রাজনৈতিক দল তৃণমূল। এবার কেন্দ্রীয় নগরে উন্নয়ন মন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নায়ডুর হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিয়েছে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের এই দল।

জাতীয় রাজনীতিতে ক্রমশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে তৃণমূল কংগ্রেস। সংসদেও সদস্য সংখ্যা আগের চেয়ে অনেক বেশি। সম্প্রতি তৃণমূল কংগ্রেসকে জাতীয় দলের স্বীকৃতি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সংসদ ভবনে আলাদা করে ঘরও পেয়েছে তৃণমূল।

কিন্তু এত সবের পরেও রাজধানীর বুকে দলের স্থায়ী অফিস করা যায়নি। বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে লুটিয়েন্সের দিল্লিতে উপযুক্ত জায়গার অভাব।

সংসদ ভবন সংলগ্ন এলাকা কেন্দ্রীয় নগরে উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের আওতায়। ২০০৯ সালে জমির জন্য আবেদন করে তৃণমূল। জমির জন্য আগাম ২০লক্ষ টাকা দেয় সে সময়। এরপরও জমি মেলেনি। গত সেপ্টেম্বরে বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় নগরে উন্নয়ন মন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নায়ডুকে চিঠি দেন সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন। এতেও সমস্যা মেটেনি।

এবার ফের মন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নায়ডুকে চিঠি দিয়েছে দলটি। চিঠিতে বলা হয়েছে, দীন দয়াল উপাধ্যায় মার্গে তৃণমূলকে একটি জমি দেখানো হলেও তা অফিস করার উপযুক্ত নয়। ক্যানিং রোডে অফিসের জন্য বাড়ি পাওয়া গেলেও অস্থায়ী অফিস করতে তৃণমূল আর রাজি নয়। ২০১৬ সালের মধ্যেই এই জমি সমস্যার সমাধান চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস।