মেইন ম্যেনু

পাকিস্তানে শিশু আত্মঘাতী হামলাকারী কেড়ে নিলো ৪৫ প্রাণ

পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের সুফি মুসলিমদের একটি মাজারে ১৪ বছর বয়সী এক শিশু আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এতে অন্তত ৪৫ জন নিহত ও আরো শতাধিক আহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যার দিকে বেলুচিস্তানের প্রত্যন্ত অঞ্চলের ওই মাজারে ধামাল নৃত্য চলাকালীন বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ১৪ বছর বয়সী এক শিশু অাত্মঘাতী হামলা চালিয়েছে।

বেলুচিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শারফরাজ আহমেদ বুগতি ডন নিউজকে বলেন, খুজদার জেলার শাহ নুরানি মাজারে বিস্ফোরণে ৪৩ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছেন। বিস্ফোরণে বিদেশিরা জড়িত থাকতে পারে বলে তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন। এদিকে বার্তাসংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে বলছে, বেলুচিস্তানের মাজারে হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)।

মাজারের তত্ত্বাবধায়ক নওয়াজ আলি রয়টার্সকে বলেন, প্রত্যেক দিন সন্ধ্যায় সেখানে ধর্মীয় ধামাল সংগীতের আসর বসে। মাজারে অনেক মানুষ আসেন।

করাচির বন্দর নগরী থেকে ১০০ কিলোমিটার উত্তরে বেলুচিস্তান প্রদেশে খুজদার জেলায় ওই মাজারটি অবস্থিত। শতাধিক আহত মানুষকে করাচির বিভিন্ন হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে। বেলুচিস্তানের সরকারি এক কর্মকর্তা বলেন, নিকটবর্তী শহরগুলো থেকে অন্তত ২৫টি ও করাচি থেকে ৫০টিরও বেশি অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যন্ত অঞ্চল হওয়ায় উদ্ধারকাজ ব্যাহত হচ্ছে। প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী বুগতি উদ্ধারকাজে অংশ নিতে সেনাবাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া আহতদের চিকিৎসার জন্য করাচি হাসপাতালে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

স্থানীয় পুলিশ দেশটির আরেক জাতীয় দৈনিক দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে বলেছেন, বেলুচিস্তানের ওই মাজারে ১৪ বছর বয়সী আত্মঘাতী এক শিশু হামলা চালিয়েছে।

এদিকে, মাজারে বিস্ফোরণের ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। একইসঙ্গে দ্রুত উদ্ধার অভিযান পরিচালনার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।