মেইন ম্যেনু

পেট্রোল, ডিজেল নয়, পানি দিয়েই চলছে এই প্রাইভেট গাড়ি!

1478343382

গাড়িতে চড়ে ঘুরে বেড়াতে কার না ভাল লাগে! কিন্তু পেট্রোল, ডিজেলের দাম যে ভাবে বেড়ে চলেছে তাতে সহজ কিস্তিতে একটা গাড়ি কেনা সম্ভব হলেও, নিয়মিত তেলের খরচ যোগানো বেশ মুশকিল হয়ে গিয়েছে মধ্যবিত্তদের কাছে। তাই বেশির ভাগের স্বপ্ন আর বাস্তবায়িত হয়ে ওঠে না। সেই স্বপ্ন পূরণ এ বার হতে পারে একেবারে ‘পানির দরে’। কারণ, গাড়ি এ বার পানি দিয়েই চলবে! অবাক হচ্ছেন! এমনই অদ্ভুত গাড়ি বানিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের এক মেকানিক। জেনে নেওয়া যাক সেই ‘ওয়ান্ডার কার’-এর সম্পর্কে কিছু তথ্য।

গাড়িটি তৈরি করেছেন ভারতের মধ্যপ্রদেশের সাগর এলাকার মেকানিক মহম্মদ রইস মেহমুদি মারকানি।

২০১২ সালে নিজের পুরনো মারুতি ৮০০-র আপাদমস্তক ভোল বদলে তৈরি করেন এই ‘ওয়াটার কার’ বা স্থানীয়দের মতে ‘ওয়ান্ডার কার’।

২০০৭ থেকে ২০১২ পর্যন্ত দীর্ঘ সময় ধরে নানা পরিক্ষা নিরীক্ষা করে একটি বিশেষ ইঞ্জিন তৈরি করেন রইস।

এই বিশেষ ইঞ্জিনে গাড়িটি চলে জল এবং ক্যালসিয়াম কার্বাইড-এর মিশ্রনে উত্পন্ন গ্যাস অ্যাসিটিলিন-এর মাধ্যমে।

মারকানি হিসাব কষে দেখিয়েছেন, ৩০ লিটার জল এবং ২ কিলোগ্রাম ক্যালসিয়াম কার্বাইডের মিশ্রণে এই গাড়ি যাবে ৩০ কিলোমিটার।

গাড়িটি এই উপাদানের মাধ্যমে ১ কিমি চালাতে খবর পড়ে প্রায় ৩ টাকা। অর্থাত্, মাত্র ৫০ টাকা খরচ করলেই এই গাড়ি আপনাকে প্রায় ১৭ কিমি মাইলেজ দেবে।

৭৯৬ সিসি ইঞ্জিনের এই গাড়িটির সর্বোচ্চ গতিবেগ ৬০ কিমি প্রতি ঘণ্টা।

গাড়িটি মোবাইল দিয়ে চালকবিহীন ভাবে নিয়ন্ত্রণও করা সম্ভব।

চিন এবং দুবাই থেকে প্রস্তাব এলেও তা প্রত্যাখ্যান করেন মারকানি। দেশীয় বাজারে এই গাড়ি আনতে ইতিমধ্যেই কথাবার্তা শুরু করেছেন তিনি।-আনন্দবাজার