মেইন ম্যেনু

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ মিরাজ

পরিবারের জন্য বাড়ি তৈরী করে দেয়ার নির্দেশনার পর প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন টেস্টে দারুণ পারফর্ম করে ইতিহাস সৃষ্টি করা বিস্ময় বোলার মেহেদী হাসান মিরাজ।

সাংবাদিকদের মিরাজ বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমার পরিবারের জন্য একটি বাড়ি বানিয়ে দেয়ার উদ্যোগ নিয়ে আমাদের প্রতি যে মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছেন, এ জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং দেশবাসীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

এ সময় তিনি আনন্দে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

মিরাজের দরিদ্র পিতা ট্যাক্সি চালক জালাল উদ্দিনও তাদের জন্য বাড়ি বানিয়ে দেয়ার উদ্যোগ গ্রহণের খবরে একই অনুভূতি প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এর আগে মিরাজের পরিবারকে বাড়ি তৈরি করে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অভিষেক সিরিজে দুটি টেস্ট খেলে মোট ১৯টি উইকেট শিকার করে নানা রেকর্ডের জন্ম দেন অলরাউন্ডার মিরাজ। এরপর তাকে নিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে হইচই পড়ে গেছে। গত অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপেই দারুণ পারফর্ম করেন মিরাজ।

ক্রিকেটে নিজের প্রতিভা দেখিয়ে সারা বিশ্বকে তাক লাগালেও মিজারের পরিবার টিকে আছে দারিদ্রের সঙ্গে লড়াই করে। মিরাজের বাবা মো. জালাল হোসেন পেশায় গাড়িচালক। মা মিনারা বেগম গৃহিনী। মিরাজের একমাত্র বোন রুমানা আক্তার মিম্মা। তারা খুলনার খালিশপুরের হাউজিংয়ের নর্থ জোনের বি ব্লকের ৭ নম্বর প্লটের ভাড়া বাসার বাসিন্দা। এখানে টিনের চালার ঘরে তাদের বসবাস।

মিরাজের পরিবারের দারিদ্র্যের কথা জানার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন বাড়ি তৈরির নির্দেশ দেন।