মেইন ম্যেনু

প্রধান নির্বাহীর অ্যাকাউন্টই বাতিল করল টুইটার

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) জ্যাক ডরসের অ্যাকাউন্টই বাতিল করে দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার।

তবে এ ঘটনাকে জ্যাক ডরসে ইন্টারনেটের ‘ভুল’ বলে উল্লেখ করেছেন।

২০০৬ সালে চালুর সময় জ্যাক ডরসে টুইটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা।

মঙ্গলবার রাতে ১৫ মিনিটের জন্য তার ৩৯ লাখ অনুসারির অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ।

এ সময়ে তার অ্যাকাউন্টে যতবার অনুসারিরা আসার চেষ্টা করেছেন, জ্যাকের অ্যাকাউন্ট বাতিলের বার্তা দেখানো হয়েছে।

পরে অবশ্য জ্যাক ডরসে নিজেই টুইট করেছেন, ‘জাস্ট সেটিং আপ মাই টুইটার… এগেইন।’

টুইটারের অভ্যন্তরীণ ভুলে অ্যাকাউন্টটি বাতিল করা হয়েছিল বলেও জানান তিনি।

জ্যাক ডরসে ২০০৬ সালের ২১ মার্চ যখন টুইটার অ্যাকাউন্ট করেন, তখনও একই ধরনের বার্তা দিয়ে শুরু করেছিলেন।

অবশ্য অ্যাকাউন্টের বেশকিছু তথ্য উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছেন তিনি। তবে এখন তার অনুসারির সংখ্যা এসে দাঁড়িয়েছে দুই লাখ ৬৭ হাজারে।

টুইটার সম্প্রতি বেশ কিছু অ্যাকাউন্ট বন্ধে অভিযান চালায়। এর মধ্যে এক সম্মেলনে হিটলারের নাজি পার্টির স্যালুট দিয়ে আলোচনায় আসা শেতাঙ্গ নেতা রিচার্ড স্পেনসারও পড়েন।

টুইটারের এ সিদ্ধান্তকে অবশ্য স্পেনসার ‘কর্পোরেট স্ট্যালিনবাদ’ বলে উল্লেখ করেছেন। বলেছেন, ‘স্ট্যালিনবাদের মাধ্যমেই টুইটার মানুষকে ‘পরিশুদ্ধ’ করার চেষ্টা করছে।’