মেইন ম্যেনু

প্রার্থী হয়েই আইভীর বিরুদ্ধে অভিযোগ সাখাওয়াতের

image-8724

প্রার্থী হওয়ার পরই নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আনলেন বিএনপি দলীয় প্রার্থী আইনজীবী সাখাওয়াত হোসেন খান।

মঙ্গলবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের আদালতপাড়ায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় এমন অভিযোগ করেন সাখাওয়াত।

সাখাওয়াত বলেন, ‘ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর মতো একজন মানুষ আচরণবিধি লঙ্ঘন করবেন-এটা আমার কল্পনাতে ছিল না। তিনি সরকারি গাড়ি ব্যবহার করছেন। সিটি করপোরেশনের অফিস ব্যবহার করছেন, সার্কিট হাউজ, জেলা পরিষদ ব্যবহার করা হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে সরকারের যতগুলো অর্গান রয়েছে সেগুলো তারা ব্যবহার করছেন-যেটা নির্বাচনী আচরণবিধির চরম লঙ্ঘন।’

এই বিষয়গুলোর প্রতি নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি দেয়া উচিত ছিল বলেও দাবি করেন বিএনপির এই প্রার্থী।

জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর আলম খন্দকারকে মেয়র পদে প্রার্থী করতে চাইলেও তিনি রাজি না হওয়ায় মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন খানকে প্রার্থী ঘোষণা করে বিএনপি।

তিনি বলেন, ‘আমি মাত্র বিএনপি দলীয় প্রার্থী মনোনীত হয়েছি। দলের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কথা বলে নির্বাচনী আচারণবিধি লঙ্ঘনের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘আমরা পূর্বেই বলেছি নির্বাচন কমিশন আসলে যে চশমা পড়েছে তারা শুধু অন্য গণতান্ত্রিক শক্তিকে দেখে। কিন্তু সরকার দলকে দেখতে পান না।’

গত সিটি করপোরেশনে নির্বাচনে ভোট গ্রহণের সাত ঘণ্টা আগে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর বসে যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গত নির্বাচনের প্রেক্ষাপট ও এবারের নির্বাচন কিন্তু এক নয়। গতবার বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী ছিল। এবার কিন্তু সমর্থিত নয়, দলীয় প্রার্থী। দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হবে। দল আমাকে বিশ্বাস করে এই প্রতীক দিয়েছেন। ধানের শীষের অসম্মান হয় এমন কার্যক্রম আমরা করবো না। আমি চাই একটি সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য ও নিরপেক্ষ নির্বাচন। সিটি করপোরেশনের ভোটাররা যাতে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে পছন্দসই প্রার্থীকে ভোট দিতে পারে নির্বাচন কমিশনকে সেই অবস্থা সৃষ্টি করতে হবে। সরকারি দল ও বিরোধী দলের প্রার্থীকে সমান সুযোগ দিতে হবে।

এদিকে বিএনপি প্রার্থীর অভিযোগের বিষয়ে ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেছেন, ‘আমি কাল (বুধবার) এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাবো।’

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জের সহকারী রিটার্নং অফিসার মো: নুরুজ্জামান তালুকদার জানান, ‘যিনি অভিযোগ করেছেন তিনি তো প্রার্থী হননি। প্রার্থী না হলে আমি কিভাবে বলবো? আর এখন তো নির্বাচনী প্রচারণই শুরু হয়নি। নির্বাচনী প্রচারণা শুরু হলে আমরা এসব বিষয় দেখবো ।’