মেইন ম্যেনু

প্রেস ফ্রিডম পুরস্কারের জন্য মাহফুজ আনাম মনোনীত

সাংবাদিকদের আন্তর্জাতিক সংগঠন রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স ২০১৬ সালের প্রেস ফ্রিডম পুরস্কারের জন্য ২২ জনকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছেন বাংলাদেশের ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনাম।

সোমবার ফ্রান্সভিত্তিক সংগঠন রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্সের নিজস্ব ওয়েবসাইটে মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এতে নয়জন সাংবাদিক, সাতটি সংবাদমাধ্যম এবং সাতজন নাগরিক সাংবাদিক মনোনয়ন পেয়েছেন।

১৯ দেশ থেকে মনোনয়ন পাওয়া এসব সাংবাদিক, সংবাদপ্রতিষ্ঠান এবং ব্লগারের মধ্যে অনেকেই সরকারি নিয়ন্ত্রণ না মানার কারণে বিচারের মুখোমুখি বা কারাগারে রয়েছেন। এছাড়া কেউ কেউ হুমকি এবং শারীরিক নির্যাতনের মুখেও সাহসী সাংবাদিকতা করছেন।

আগামী ৮ নভেম্বর ফ্রান্সের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর স্টার্সবার্গে মনোনীতদের মধ্যে একজন সাংবাদিক, একটি সংবাদমাধ্যম এবং একজন নাগরিক সাংবাদিককে প্রেস ফ্রিডম পুরস্কার-২০১৬ দেয়া হবে।

ঝুঁকি নেয়া ৯ সাংবাদিক

এবারের প্রেস ফ্রিডম পুরস্কারের জন্য নয়জন সাংবাদিককে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে ঝুঁকি গ্রহণ করে সাংবাদিকতা করার জন্য।

তারা হলেন, সিরিয়ার হাদি আবদুল্লাহ, আফগানিস্তানের নাজিবা আইউবি, কলম্বিয়ার জিনেথ বিদয়া, মালদ্বীপের জাহিনা রশীদ, দক্ষিণ সুদানের আলফ্রেড তাবান, বাংলাদেশের মাহফুজ আনাম, ফ্রান্সের এডুয়ার্ড পেরিন এবং মিশরের কারাবন্দী সাংবাদিক ইসমাইল আলেক্সান্ড্রানি ও আজারবাইজানের সেইমুর খাজি।

সাত স্বাধীন সংবাদমাধ্যম

ওমানের আজান, মধ্য এশিয়ার ফারগানা নিউজ ডটকম, চীনের মানবাধিকার বিষয়ক ওয়েবসাইট ৬৪তিয়ানওয়াং, আলজেরিয়ার ওয়েবভিত্তিক রেডিও এম, লিবিয়ার বাওয়াত আল ওয়াসাত ওয়েবসাইট, পোল্যান্ডের গেজেটা ওয়াইবরজা এবং ব্রাজিলের এজন্সিয়া পাবলিকা।

অগ্রসর নাগরিক সাংবাদিকতা

রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স জানিয়েছে প্রচলিত সংবাদমাধ্যম পুরোপুরি তাদের দায়িত্ব পালন করতে সক্ষম হচ্ছে না। এই ঘাটতি পূরণে নাগরিক সাংবাদিক এবং ব্লগাররা স্বাধীন সংবাদ ও তথ্য সরবরাহের দায়িত্ব পালন করছে। যার কারণে তারা প্রায় সময়েই সরকারের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার শিকার হন।

এবছরর প্রেস ফ্রিডম পুরস্কারের জন্য দমনপীড়নের শিকার কয়েকজন নাগরিক সাংবাদিক, ব্লগার এবং একটি ওয়েবসাইটকে পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন দিয়েছে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স।

চীনের নাগরিক সাংবাদিক লু ইউইউ এবং লি টিংগিউ, বাহরাইনের ব্লগার আলি আল মেরাজ, ব্রিটিশ-ইরানি রয়া সাবেরি নেগাদ, কিউবার তানিয়া কোয়িনতেরো এবং তার ছেলে ইভান গার্সিয়া কোয়িনতেরো, ব্রাজিলের লিওনার্দো সাকামতো এবং বুরুন্ডির সংবাদ ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেজ এসওএস মিডিয়া বুরুন্ডি।

উল্লেখ্য, ১৯৯২ সাল থেকে সাহসী সাংবাদিকতার জন্য সাংবাদিক ও সংবাদপ্রতিষ্ঠানকে সম্মান জানাতে প্রেস ফ্রিডম পুরস্কার দিয়ে আসছে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স। এবার টিভি৫ মন্ডের সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে এ পুরস্কার দিচ্ছে সংস্থাটি। পুরস্কারের জণ্য নির্বাচিতদের প্রত্যেকেই ২৫ হাজার ইউরো পাবেন।