মেইন ম্যেনু

ফেসবুকে বন্ধুত্ব, চাকরি দেওয়ার নামে তরুণীকে ধর্ষণ

rape-9

মাস তিনেকের সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপ ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্বে পরিণত হতে খুব বেশি সময় নেয়নি। তারই সুযোগে এক তরুণীকে চাকরি দেওয়ার নামে হোটেলের ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। বুধবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার বেনিয়াপুকুরে। খবর আনন্দবাজারের।

বৃহস্পতিবার তরুণীর কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নেমেছে পুলিশ। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

পুলিশের কাছে ব্যারাকপুর বাসিন্দা ওই তরুণী জানিয়েছেন, তিন মাস আগে তাঁর সঙ্গে ফেসবুকে চিত্তরঞ্জন পাত্র নামে এক ব্যক্তির পরিচয় হয়। তাঁদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। তরুণী তখন হন্যে হয়ে চাকরি খুঁজছিলেন। এটা জানার পরই চিত্তরঞ্জন তাঁকে চাকরির প্রস্তাব দেয়। বেনিয়াপুকুরের ৩৪ নম্বর ডক্টর সুন্দরীমোহন অ্যাভিনিউয়ের একটি হোটেলে তাঁকে চাকরির ইন্টারভিউয়ের জন্য আসতে বলে চিত্তরঞ্জন। ওই দিন সন্ধ্যায় সময়মতো সমস্ত নথি নিয়ে হোটেলে পৌঁছে যান তিনি। কিন্তু সেখানে তিনি ছাড়া আর কোনও চাকরিপ্রার্থী ছিলেন না। কিছু পরে তাঁকে হোটেলের একটি ঘরে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। তরুণীর অভিযোগ, ওই ঘরে চিত্তরঞ্জন ছাড়াও আরও তিন জন ছিল। এর পর মুখ-হাত চেপে ধরে তারা তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ।

ঘটনার পর অবশ্য তরুণী বিষয়টি কাউকেই জানাননি। এমনকী, হোটেলের কর্মীদেরও তিনি কিছু জানাননি। হোটেল থেকে চুপচাপ বেরিয়ে চলে আসেন। তরুণীর কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে হোটেলের কর্মীদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজ।