মেইন ম্যেনু

বরগুনায় ১৩ জলদস্যুর আত্মসমর্পণ

arrested120161020131623

বরগুনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে অস্ত্র জমা দিয়ে ১৩ জলদস্যু আত্মসমর্পণ করেছে।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলা সার্কিট হাউজ মাঠে তারা আত্মসমর্পণ করে। এ সময় র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

আত্মসমর্পণকারী জলদস্যুরা হলো- বাহিনীর প্রধান মো. আলমগীর শেখ, মো. কামরুল ফকির, মো. আবদুল মালেক, আবদুল কাদের শেখ, মো. হাফিজুর রহমান শেখ, মো. কবির সরদার, মো. দেলোয়ার শেখ, মো. হাসান সরদার, মো. নান্না ফকির, মো. তোহিদুল ইসলাম, মো. রাজু শেখ, মো. লিটন হাওলাদার ও মো. তারিকুল গাজী।

তারা আটটি বিদেশি একনলা বন্দুক, তিনটি দেশি একনলা বন্দুক, একটি বিদেশি দোনালা বন্দুক, দুটি এয়ার রাইফেল, চারটি এলজি, দুটি কাটা রাইফেলস ও ৫৯৬টি গুলি জমা দিয়েছে।

র‌্যাব-৮-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল ইফতেখারুল মাবুদ বলেন, গত ৩১ মে সুন্দরবনের সবচেয়ে বড় দস্যু দল মাস্টার বাহিনীর সদস্যরা অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ করে। তখন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুন্দরবনের অন্য দস্যু বাহিনীগুলোকে আত্মসমর্পণ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাইলে সরকার তাদের সহায়তা করবে বলে আশ্বাস দেন। এরই ধারাবাহিকতায় জলদস্যুরা আত্মসমর্পণ করতে উদ্যোগী হয়।

এর আগে সকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খান কামাল ও র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ হেলিকপ্টার যোগে বরগুনা আসেন।