মেইন ম্যেনু

‘বাংলাদেশের উইকেট রহস্যময়’

chris-woakes-120161029213555

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের বল হাতে সেরা পারফরমার মেহেদী হাসান মিরাজ জানালেন নতুন বলই তার পছন্দ। আর বলবেনই না কেন? কারণ নতুন বলেই যে বেশি উইকেট পেয়েছেন তিনি! বাংলাদেশের উইকেট বলেই এমনটা সম্ভব হয়েছে। নতুন বলে স্পিন হচ্ছে। অথচ পুরনো বলে স্পিন হওয়ার কথা; কিন্তু তখন স্বাভাবিক বল হয়। আর তাই স্বাভাবিকভাবেই বাংলাদেশের উইকেটকে রহস্যময় বললেন ইংলিশ দলের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার ক্রিস ওকস।

শনিবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে ওকস বলেন, ‘অবশ্যই এ উইকেট একটু রহস্যময়। নতুন বলে এখানে বেশ স্পিন হচ্ছে। একটা সরাসরি আসছে এবং আরেকটা ঘুরে চলে যাচ্ছে, বাউন্স হচ্ছে। ব্যাট করার জন্য যখন বল পুরনো হচ্ছে, তখন উইকেটটাকে কিছুটা সহজতর মনে হচ্ছে। তখন আবার বাউন্সগুলো বেশ নিয়মিতই পাওয়া যাচ্ছে। যদিও বল কিছুটা পুরনো হয়ে গেলে স্বাভাবিকভাবে এ সময় স্পিন হওয়াটা অব্যাহত থাকার কথা।’

বাংলাদেশের এমন উইকেটে সংগ্রামই করতে হচ্ছে ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের। পাশাপাশি বোলাররাও পড়েছেন কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে। তবে ওকসের মতে উপমহাদেশে যেখানেই খেলেন, এমন চ্যালেঞ্জে পড়েন তাদের স্পিনাররা। আর সে চ্যালেঞ্জটা নিতে তারা প্রস্তুত বলে জানান তিনি।

‘আমি মনে করি ইংল্যান্ড দল যখন উপমহাদেশে আসে আমাদের স্পিনাররা সবসময়ই ভাল করার ক্ষেত্রে বেশ চাপে থাকে। সে কারণে সবসময়ই বাড়তি চাপ তৈরি হয়; কিন্তু আমাদের ছেলেরা এই পরিবর্তনটা ভালভাবেই মেনে নিয়ে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার জন্য প্রস্তুত থাকে। আমি নিশ্চিত, আগামীকালও তারা সেটা করার দিকেই মনোযোগী থাকবে।’

এদিন শেষ বলে বাংলাদেশের সেট ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহর উইকেট পায় ইংলিশরা। এই উইকেটই তাদের প্রেরণা দিবে বলে মনে করেন ওকস, ‘দিনের শেষভাগে একটা উইকেট তুলে নিয়েছি। এ থেকে আমরা ভাল একটা প্রেরণা পেয়েছি এবং এ কারণে আশা করছি বাংলাদেশের ওপর আমরা চাপ তৈরি করতে পারব।’