মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশের বিপক্ষে আরো খেলতে চায় ইংল্যান্ড

england-cricket

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলে মুগ্ধ ইংল্যান্ড। সেই সঙ্গে আয়োজক দেশটির দেয়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েও সন্তুষ্ট তারা। আর সে কারণেই সামনে অনেক ব্যস্ত সূচি থাকলেও বাংলাদেশের বিপক্ষে আরো ম্যাচ খেলার চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) চেয়ারম্যান কলিন গ্র্যাবস।

টাইগারদের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে গত ৩০ সেপ্টেম্বর ঢাকায় পা রাখে ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। জমজমাট ওয়ানডে সিরিজে ২-১ ব্যবধানে পরাজিত হয় স্বাগতিক দল। টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাত্র ২২ রানে হার মানলেও মিরপুরে শেষ ম্যাচে রোববার ১০৮ রানের বড় জয় তুলে নেয় মুশফিকুর রহিমের দল।

মাঠের জয়ের সঙ্গে সঙ্গে মাঠের বাইরেও নিরাপত্তা সঙ্ক্রান্ত চ্যালেঞ্জ জয় করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সিরিজ চলাকালেই গত সপ্তাহে ঢাকা এসেছিলেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শন ক্যারল। ইংল্যান্ডকে দেয়া নিরাপত্তা দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছিলেন তিনি। এবারে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশংসা করলেন ইসিবি চেয়ারম্যান গ্র্যাবসও।

ইংল্যান্ড ক্রিকেটের প্রধান গ্র্যাবস বলেন, ‘এখানে আমরা যে নিরাপত্তা পেয়েছি তার কোনো তুলনা নেই। আমার মনে হয় ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজনে এই দেশ নিরাপদ। সবকিছুর জন্য বিসিবি ও বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ জানাই।’

টাইগারদের প্রশংসা করে গ্র্যাবস আরো বলেন, ‘নিজেদের মাঠে বাংলাদেশ খু্বই শক্তিশালী। ক্রিকেট অঙ্গনে তারা প্রচুর উন্নতি করেছে। আশাকরি এর ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। আর এখানে ক্রিকেটের প্রতি সাধারণ মানুষের ভালোবাসাও অসাধারণ মনে হয়েছে আমার কাছে। সামনে ব্যস্ত সময়। তবে আমরা চেষ্টা করব, বাংলাদেশের সঙ্গে যেন আরো ম্যাচ খেলা যায়।’

বাংলাদেশ সফর শেষ না হতেই ইংলিশরা চলতি মাসের ৯ তারিখ থেকে শুরু করছে লম্বা ভারত সফর। সেখানে তারা ৫টি টেস্টের সঙ্গে ৩টি করে ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি ম্যাচ খেলবে।