মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশ কি এ টেস্ট জিততে পারবে?

254210

বাংলাদেশ কি ঢাকা টেস্ট জিততে পারবে? ইংল্যান্ডের সামনে ২৭৩ রানের যে টার্গেট তার আগেই কি ইংলিশদের আটকে ফেলতে পারবে টাইগার বোলাররা?

ক্রিকেট বোদ্ধারা কিন্তু আশাবাদী। তাদের আশাবাদের পেছনে কাজ করছে এ টেস্টের প্রথম ইনিংস এবং চট্টগ্রাম টেস্টের দুই ইনিংসেই বাংলাদেশী বোলারদের অসাধারণ পারফরম্যান্স।

বলা হতো, টেস্ট ম্যাচে প্রতিপক্ষকে দুইবার অলআউট করার সামর্থ্য বাংলাদেশের নেই। এমনকি বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্টেরও একইরকম ধারণা ছিল। তারাও বিশ্বাস করতো, বাংলাদেশের বোলাররা প্রতিপক্ষের ২০ উইকেট আউট করতে পারবেন না।

কিন্তু বাংলাদেশের নতুন সেনসেশন মেহেদী হাসান মিরাজের অসাধারণ বোলিং পারফরম্যান্সে চট্টগ্রাম টেস্টে দুই দুইবার অলআউট করেছে বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে মিরাজ নিয়েছেন ৬ উইকেট, দ্বিতীয় ইনিংসে ২। ওই টেস্টে ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে অলআউট হয়েছে ২৯৩ রানে, দ্বিতীয় ইনিংসে করেছে ২৪০।

ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে মিরাজ আবার ৬ উইকেট নিয়েছেন। যে কারণে ২৪৪ রানেই অলআউট হয়ে গেছে ইংল্যান্ড।

এখন ইংল্যান্ডের সামনে জয়ের জন্য টার্গেট ২৭৩ রান। আগের তিন ইনিংসে ইংল্যান্ড মাত্র একবারই এর চেয়ে বেশি রান করেছে। তবে, সেটা ছিল চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে। এবার কাজটা অনেক কঠিন। কারণ চতুর্থ ইনিংসে রান ধাওয়া করতে হচ্ছে তাদের।

এর সঙ্গে পুরনো পরিসংখ্যান যোগ করে চ্যানেল অাই’র স্পোর্টস এডিটর এবং সাবেক ক্রিকেটার সাইদুর রহমান শামীম বলেছেন, জয়ের পাল্লাটা বাংলাদেশের দিকেই ভারী।

ইংল্যান্ডের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন-আপের কথা উল্রেখ করেই তিনি বলেছেন, ওই ব্যাটিং শকিতকে ২৭৩ রানের মধ্যে আটকে রাখার সামর্থ্য বাংলাদেশী বোলারদের আছে।

ক্রীড়া বিশ্লেষক ফরহাদ টিটো বলছেন, জয়ের জন্য বাংলাদেশকে স্পিন, স্পিন এবং স্পিনের উপর নির্ভর করতে হবে। আর রাখতে হবে আমব্রেলা ফিল্ডিং।

ঢাকা টেস্টে দুই ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিলো যথাক্রমে ২২০ ও ২৯৬ রান। আর ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে ২৪৪ রানে অলআউট হয়েছিলো।