মেইন ম্যেনু

বাজারে সেরা ৬টি ফেসওয়াশ

“ফেসওয়াশ” নারীদের প্রতিদিন ব্যবহার্য একটি প্রসাধনী। ত্বক থেকে ধুলোবালি, ময়লা দূর করার জন্য সাবানের পরিবর্তে ফেসওয়াশ ব্যবহার করা হয়। ত্বকের ধরণ অনুযায়ী ফেসওয়াশ ব্যবহার করা উচিত। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য জেল ফেসওয়াশ, শুষ্ক ত্বকের জন্য ক্রিম ফেসওয়াশ যা ত্বক হাইড্রেটেড এবং ময়েশ্চারাইজ করবে। বাজারে নানা ব্যান্ডের ফেসওয়াশ কিনতে পাওয়া যায়। এর মাঝে বাজারের কিছু কিছু সেরা ফেসওয়াসের নাম নিয়ে আজকের ফিচার।

১। Himalaya Herbals Purifying Neem Face Wash

হিমালয়ের নিম ফেসওয়াশ বেশ জনপ্রিয় একটি ফেসওয়াস। এই জেল ফেসওয়াশটি তৈলাক্ত ত্বকের জন্য অনেক উপকারি। এটি ত্বকের বাড়তি তেল দূর করে দেয়। নিম এবং হলুদের নির্যাস ত্বক ভিতর থেকে পরিষ্কার করে থাকে।

২। Neutrogena Deep Clean Facial Cleanser

নিউট্রেজিনার ডিপ ক্লিন ফেসওয়াশ মূলত তৈলাক্ত ত্বকের জন্য হলেও সব ধরণের ত্বকের অধিকারীরা এটি ব্যবহার করতে পারবে। ক্যেমিক্যাল ফেসওয়াশ হলেও এটি ত্বকের ধুলো বালি ময়লা ভিতর থেকে পরিষ্কার করে থাকে।

৩। Garnier Pure Exfoliating Face Wash

গার্নিয়ারের এই ফেসওয়াশটি তৈলাক্ত ত্বক থেকে শুরু করে মিশ্র ত্বক সবধরণের ত্বকের জন্য উপযোগী। এটি ত্বক ত্বক পরিষ্কার করার পাশাপাশি ত্বকে এক্সফলিয়েট করে থাকে। অ্যালকোহল ফ্রি হওয়া ত্বক শুষ্ক করে তোলে না এই ফেসওয়াশটি।

৪। Olay Natural White Foaming Cleanser

শসার নির্যাস সমৃদ্ধি এই ফেসওয়াশটি ত্বক থেকে ময়লা, ধুলোবালি, সানবার্ন দূর করে দেয়। জেল ফেসওয়াশটি তৈলাক্ত ত্বকের জন্য বেশ উপকারি।

৫। Pond’s Pure White Deep Cleansing Facial Foam with Activated Carbon

অ্যাক্টিভেটেড কার্বন সমৃদ্ধ পন্ডসের এই ফেসওয়াশটি ত্বকের সবধরণের ময়লা ধুলো বালি দূর করে দেয়। ধুলো বালি পরিষ্কার করার পাশাপাশি এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে থাকে। তবে ত্বক কিছুটা রুক্ষ এবং শুষ্ক করে তোলে।

৬। Clean and Clear Morning Energy Foaming Face Wash

তিনটি ভিন্ন ভিন্ন ফলের নির্যাস সমৃদ্ধ ক্লিন এন্ড ক্লিয়ার ফোমিং ফেসওয়াশ। এটি সব ধরণের ত্বকের জন্য উপযোগী। ফলের নির্যাস দিয়ে তৈরি হওয়ায় ত্বকে একটি সুবাস দেয়।