মেইন ম্যেনু

বাবা-মায়ের অনুরোধে নবজাতকের নাম রাখলেন মোদি

নবজাতকের বাবা-মায়ের মনের ইচ্ছে পূরণ করে তার নাম ঠিক করে দিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আগস্টে সন্তানের জন্মের পর দেশটির উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুরের এক দম্পতি মোদির কাছে সন্তানের নাম চেয়ে চিঠি লিখেছিলেন। সদ্যোজাত শিশুর নামসহ সেই চিঠির জবাব দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি।

এমন অভাবনীয় কিছুর স্বপ্নই দেখেছিলেন ওই দম্পতি। গত ১৩ আগস্ট কন্যাসন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার দু`মাস আগেই মির্জাপুরের ভরত সিংহ ও তার স্ত্রী ঠিক করেন তাদের সন্তানের নাম রাখবেন খোদ প্রধানমন্ত্রী।

সন্তানের জন্মের দিনই ভরতের স্ত্রী নিজের ইচ্ছের কথা উল্লেখ করে মোদিকে চিঠি লেখেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে (পিএমও)। তিনি কন্যাসন্তানদের বাঁচাতে মোদির অবদানের কথা লেখেন, চিঠিতে অলিম্পিক্সে ভারতের মেয়েদের সাফল্যের কথাও উল্লেখ করেন।

সাত দিনের মাথায়, ২০ আগস্ট বিকেলে পিএমও থেকে ফোন পান ভরত। ফোনের ওপারে স্বয়ং মোদি! মেয়ের বাবা হওয়ার জন্য ভরতকে অভিনন্দন জানান মোদি। এখানেই শেষ নয়, ভরত ও তার স্তীর নামের সঙ্গে মিলিয়ে তাদের মেয়ের নাম ঠিক করে দেন‘বৈভবী’।

আনন্দে আত্মহারা ভরতের মুখ থেকে পুরো কাহিনি শুনে বিশ্বাসই করতে চাননি গ্রামের কেউ। তাকে নিয়ে ঠাট্টা-বিদ্রূপও করেন অনেকে। ভরত পিএমওর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করে জানান, গ্রামবাসীরা কেউ তার কথা সত্যি বলে মানছে না, তাই প্রধানমন্ত্রী যে তার মেয়ের নাম রেখেছেন, সেটা যেন লিখিত ভাবে তাকে জানিয়ে দেওয়া হয়।

পরে ৩০ আগস্ট পিএমও থেকে একটি চিঠি পান ভরত। এতে লেখা রয়েছে, আপনার ঘর আলো করে এসেছে একটি কন্যাসন্তান। আপনাকে দারুণ অভিনন্দন। আমার শুভেচ্ছো রইল, বৈভবীর স্বপ্ন আপনারা পূরণ করুন, আপনাদের শক্তি হয়ে উঠুক ও।