মেইন ম্যেনু

বাড়ি বানাতে কুমারিত্ব নিলামে তুললেন যুবতী!

নিছক পয়সা রোজগারের জন্য বা বিখ্যাত হওয়ার চেষ্টায় কুমারিত্ব বা ভার্জিনিটি নিলামে তোলার ঘটনা পাশ্চাত্যে নতুন কিছু নয়। তবে তা যদি হয় ভালোবাসার খাতিরে তবে একটু অবাক হতে হয় বৈকি। সম্প্রতি সেরকমই একটি ঘটনার কথা জানা গেল।

আগুনে সম্পূর্ণ ভস্মীভূত সম্পূর্ণ বাড়ি। বাবা-মার জন্যে একটা বাড়ি তৈরি করে দেওয়াটা খুবই জরুরি। কিন্তু আর্থিক কারণে সেটা করে দেওয়াটা ছিল খুন কষ্টকর এই তরুণীর কাছে। আর সেই কারণে খোদ নিজের সতীত্বকেই নিলামে তুললেন ক্যাথরিন স্টোন। তবে এ নিয়ে বিন্দুমাত্র অনুতপ্ত নন ক্যাথরিন। তাঁর স্পষ্ট কথা, “এটা আমার সিদ্ধান্ত।”

২০১৪ সালে আগুন লেগে পুড়ে যায় সিয়াটেলে ক্যাথরিনদের বাড়ি। লাখ টাকার সম্পত্তির ক্ষতি। গত দুবছর ধরে ওই পোড়ো বাড়িতেই আছেন ক্যাথরিনের বাবা-মা। টাকার সেভাবে জোগান নেই। তাই নতুন বাড়ি তৈরি করে উঠতে পারেননি। এমন সময় ফেসবুকে একটি ব্রথেলের বিজ্ঞাপন চোখে পড়ে ক্যাথরিনের।

নিলামে ক্যাথরিনের কুমারিত্বের প্রাথমিক দাম রাখা হয়েছে প্রায় তিন কোটি টাকা। চুক্তি মতো নিলামে যা দর উঠবে তার ৫০ শতাংশ পাবেন ক্যাথরিন আর ৫০ শতাংশ যাবে ডেভিড হফের কাছে |

ক্যাথরিনের এই সিদ্ধান্তে অনেকে খুশি না হলেও ক্যাথরিন বলছেন‚ এই সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনও সংশয় বা দ্বিধা নেই তাঁর মনে। কারণ লোকে ভালোবাসার জন্য কুমারিত্ব খোয়ানোর কথা বলে আর তিনিও ঠিক তাই করছেন | তিনিও তাঁর কুমারিত্ব নিলামে তুলেছেন তাঁর পরিবারের প্রতি ভালোবাসার খাতিরেই।



« (পূর্বের সংবাদ)