মেইন ম্যেনু

বিএনপির ৭ নভেম্বরের কর্মসূচি প্রতিহত করা হবে: হানিফ

hanif2

সিপাহী বিপ্লবের নামে ৭ নভেম্বর কোনো কর্মসূচি পালন করা হলে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি তা কঠোর হস্তে প্রতিহত করবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

সোমবার রাজধানীর মোহাম্মদপুর কমিনিউটি সেন্টারে ৩ নভেম্বর জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভা সফল করতে এক বর্ধিত সভায় তিনি এ ঘোষণা দেন।

আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগর উত্তর শাখা এ বর্ধিত সভার আয়োজন করে।

হানিফ বলেন, সিপাহী বিপ্লবের নামে ১৯৭৫ সালের ৭ নভেম্বর ১২শ’ সৈন্যকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসি দেয়া হয়েছিল। বিপ্লব দিবসের নামে কোনো কর্মসূচি পালন করার চেষ্টা করলে কঠোরভাবে তা প্রতিহত করা হবে।

ন্যাক্কারজনক ওই হত্যাকাণ্ডের সমর্থন করে কর্মসূচি নিলে কাউকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, সিপাহী বিপ্লব দিবসের নামে ১৯৭৫ সালের হত্যাকাণ্ডকে জায়েজ করার জন্য মাঠে নামতে চায় একাত্তরের ঘাতকদের দোসর বিএনপি।

এসময় জিয়াউর রহমানকে ১৫ আগস্টের নেপথ্যের নায়ক আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, জিয়ার নির্দেশনাতেই ৩ নভেম্বর জেলহত্যাকাণ্ড সম্পন্ন হয়েছিল। জিয়ার বিচার করলেই জাতি কলংকমুক্ত হবে।

বিএনপি নেতারা সন্ত্রাসী ভাষায় কথা বলছে দাবি করে হানিফ বলেন, হুমকি-ধমকি দিয়ে লাভ হবে না। দেশের মানুষ আপনাদের রক্ত চক্ষুকে ভয় করে না।

প্রসঙ্গত, রোববার রাজধানীতে একটি আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে কারচুপি করতে গেলে ঠ্যাং ভেঙে দেয়া হবে।’

বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এছাড়া উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহর সভাপতিত্বে দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।