মেইন ম্যেনু

‘বিএনপি নেতাকর্মীদের বাড়িতে হানা দিচ্ছে পুলিশ’

rijvi2-md20161101142959

ঢাকা মহানগরীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ৭ নভেম্বরের কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ হানা দিচ্ছে ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী বলেন, ‘এটি বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর শুধু অগণতান্ত্রিক আচরণই নয়; বরং এটি অবৈধ রাষ্ট্রক্ষমতার জোরে দেশব্যাপী আধিপত্য বজায়ের একটি ন্যাক্কারজনক দৃষ্টান্ত। বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার পুরনো অন্ধ, বন্ধা, বাকশালী ব্যবস্থার মৃতদেহটাই পুনরুজ্জীবিত করার চেষ্টা করে নিজেদের টিকিয়ে রাখতে চাচ্ছে। এ অনাচার যে বেশি দিন টিকে না, এর পরিণতি করুণ ও মর্মান্তিক হয়।’

‘আমরা বিশ্বাস করতে চাই, ক্ষমতাসীন মহলের শুভবুদ্ধির উদয় হবে এবং গণতন্ত্রের পথচলায় সভা-সমাবেশ করতে কোনো বাধার সৃষ্টি করবে না। জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে ৮ নভেম্বরের শান্তিপূর্ণ জনসভা সফল করতে প্রশাসন যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করবে বলেও আশা প্রকাশ করছি’ যোগ করেন রিজভী।

ব্যবসায়ীদের প্যাকেজ ভ্যাট সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘প্যাকেজ ভ্যাট পুনর্বহাল করে ব্যবসায়ীদের বিভিন্নভাবে হয়রারি করা হচ্ছে। ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী দুর্নীতি ও লুটপাটের মাধ্যমে সবকিছু খেয়ে উজাড় করার পর এখন ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভ্যাট আরোপের নামে তাদের নিঃস্ব ও ধ্বংস করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। বর্তমান অবৈধ শাসকগোষ্ঠী উন্নয়নের নামে হাজার হাজার কোটি টাকা লুটপাট করে এখন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের রক্ত চুষে নেওয়ার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন—বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, বেলাল আহমেদ প্রমুখ।