মেইন ম্যেনু

বিকল্প স্থানে সমাবেশ করার অনুমতি চাইবে বিএনপি

bnp-logo-lg20160420065159

বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে আগামী ৭ নভেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে আবারও অনুমতি চাইবে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর একথা বলেছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা শেষ পর্যন্ত অনুমতি নেওয়ার চেষ্টা করবো। না হলেও বিকল্প স্থানে সমাবেশ করবো।’

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

ধারণা করা হচ্ছে নয়াপল্টন কিংবা ইঞ্জিনিয়ার ইন্সটিটিউশনে সমাবেশ করার বিকল্প স্থান বলে বিবেচনা করছে বিএনপি।

এর আগে বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান জানান, একই দিনে একই স্থানে একাধিক রাজনৈতিক দল সমাবেশের অনুমতি চাওয়ায় কাউকেই সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হবে না।

তিনি বলেন, ‘৭ ও ৮ নভেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে একাধিক রাজনৈতিক দল সমাবেশ করার অনুমতি চেয়েছে। এতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে কাউকেই সমাবেশের অনুমতি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই সরকার সব সময়ই একটা অজুহাত খুঁজে। তাই আমরা জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বিকল্প স্থানে সমাবেশের অনুমতি চাইবো। আশা করি সেখানে সমাবেশ করার অনুমতি পাবো।’

ফখরুল বলেন, ‘আগে রাষ্ট্রীয়ভাবে এই দিনটি পালিত হতো। এখন সরকার বাধা দিচ্ছে। গণতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধা থাকলে তারা এমনটি করত না।’ সরকার গণতন্ত্রের বিষয়ে শ্রদ্ধা রেখে অনুমতি দেবে বলে আশা প্রকাশ করেন ফখরুল।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ি-ঘরে আগুন দেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা এর আগে এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছি। সেখানেও আমরা বলেছি। এটা একটি সুপরিকল্পিত ঘটনা। আমাদের মধ্যে যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রয়েছে তা বিনষ্ট করা হচ্ছে। এটা একটি বিশেষ মহলের কাজ।’