মেইন ম্যেনু

বিচিত্র ঘটনা, রুশ দম্পতির বিয়ে দিলো ভাল্লুক

1477998847

নিজে হাতে চারহাত এক করে দিল। প্রথা মেনে কনের হাতে দিল স্নেহের চুম্বন। আবার বরের কাঁধে হাত রেখে ছবি তুলতেও ভুললো না ‘বেস্টম্যান’ (‌খ্রিস্টান মতে বিয়েতে বরের নিকটজনের ভূমিকা পালন করেন যিনি)‌‌। আর বিচিত্র এই বিয়েতে সাক্ষী রইলেন বরবধূর পাঁচশোরও বেশি আত্মীয়, নিকটজন। বিচিত্রই বটে।

কারণ এই ডেনিস এবং নেলিয়ার নামে ওই দুই তরুণ-‌তরুণীর বিয়ের বেস্টম্যানটি ছিল ১৩৩ কিলোগ্রাম ওজনের একটি অতিকায় ‘‌ব্রাউন বিয়ার’‌! তার নাম স্টিফেন।‌ অভিনব এই ঘটনা ঘটেছে রাশিয়ার মস্কোতে। পেশায় পশুপ্রশিক্ষক ডেনিস একটি চিড়িয়াখানায় কর্মরত। স্টিফেনের দেখভাল করেন তিনি।

স্টিফেন বলেছেন, ‘‌স্টিফেনের মতো লক্ষ্মীছেলে আর হয় না। আমরা দু’‌জন দু’‌জনকে ভাইয়ের মতো ভালবাসি। ওর খাঁচার সামনেই আমার সঙ্গে নেলিয়ার আলাপ হয়েছিল। তিনজনে একসঙ্গে অনেকটা সময় কাটিয়েছে। স্টিফেনের সঙ্গে নেলিয়ারও ভালই আলাপ জমে গিয়েছে। আমি চেয়েছিলাম, আমাদের এই স্মরণীয় দিনটার সাক্ষী থাকুক স্টিফেন।’‌ আর কনে কী বলছেন?‌

নেলিয়ার স্বীকারোক্তি, ‘‌স্টিফেনকে আমিও ভালবাসি ঠিকই, তবে খাঁচার বাইরে ওর সঙ্গে খুব বেশি সময় কাটাইনি। তাই একটু ভয় লাগছিল।’‌ স্টিফেন অবশ্য বড়সড় কোনও দুষ্টুমি করেনি। শুধু নেলিয়াকে আদর করতে গিয়ে চেটে দিয়েছে। তাতে নষ্ট হয়েছে নেলিয়ার প্রসাধন। পাশাপাশি ডেনিসকে আচমকা জড়িয়ে ধরতে গিয়ে মাটিতে ফেলেই দিয়েছে। ফলে সামান্য আহত হয়েছেন ডেনিস। বর কনে দু’‌জনেই তাতে অবশ্য একটুও রেগে যাননি। তারা বলছেন, ‘‌এটুকু তো হতেই পারে।’‌ আজকাল