মেইন ম্যেনু

বিদ্যা অর্জনে ইস্পাতের মই পেল সেই শিক্ষার্থীরা

chaina1_31562_1479800286

চীনের সিচুয়ান প্রদেশের বাঁশের মই বেয়ে প্রায় আড়াই হাজার ফুট (৮০০ মিটার) পাহাড় পাড়ি দিয়ে স্কুলে যাওয়া সেই শিক্ষার্থীদের জন্য ইস্পাতের নতুন মই তৈরি করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

সিচুয়ান প্রদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল আতুলিয়ার গ্রামে ৭২টি চীনা পরিবারের বসবাস। এসব পরিবারের শিশুদের খাড়া পাহাড়ে স্থাপিত বিশেষ ধরনের মই বেয়ে স্কুলে যেতে হয়।

স্কুলমুখী এসব শিশুর বয়স ৬ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে। ৮০০ মিটার (২৬২৫ ফুট) খাড়া পাহাড় পাড়ি দিতে তাদের সময় লাগে দেড় ঘণ্টার বেশি।

এতদিন বাঁশ ও এক ধরনের পাহাড়ি লতা দিয়ে তৈরি মই বেয়ে ঝুঁকি নিয়ে খাড়া পাহাড় পাড়ি দিয়ে স্কুলে যেত এই শিশু শিক্ষার্থীরা।

স্থানীয়ভাবে এ মই ‘আকাশ মই’ নামে পরিচিত।

শিশুদের কয়েকজনের বাবা-মা এ সময় তাদের পাহাড় চড়া তত্ত্বাবধান করতেন।

পাহাড় সফর এতটাই কঠিন যে, প্রতি দুই মাসে একবার পাহাড় চড়ে তারা। তবে এ উচ্চতা পাড়ি দিতে মোটেও ভীত নয় বলে জানায় শিশুরা।

শুধু একজন বলেছে, একবার তার এক বন্ধু পড়ে যাওয়ার উপক্রম হলে সে একটু ভয় পেয়েছিল।

চীনা ফটোগ্রাফার চেন জি খবর পান, ১৪ মে শিশুরা এ দুর্গম পথ পাড়ি দেবে। সেখানে গিয়ে তিনি শিশুদের দুর্গম পথ পাড়ি দেয়ার দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করেন।

সম্প্রতি বিবিসি, সিএনএন, দ্য গার্ডিয়ানসহ বেশ কয়েকটি অন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

বিবিসি একটি ভিডিওতে স্কুলগামী ওই শিশুদের জীবনের ঝুঁকি স্কুলে যাওয়ার চিত্র তুলে ধরা হয়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে চীনা কর্তৃপক্ষ সেখানে বাঁশের মইয়ের পরিবর্তে ইস্পাতের নতুন মই তৈরি করে দিয়েছে।