মেইন ম্যেনু

বিপিএলের সময়সূচিতে আবারও পরিবর্তন!

1478922136

‘উইকেট ’ আর ‘লো স্কোরিং গেম’- এবারের বিপিএলের বিজ্ঞাপন হয়ে যাবার জোগাড়! টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে কোথায় উইকেট হবে ব্যাটসম্যানদের বন্ধু। ব্যাটসম্যানরা ইচ্ছেমতো চার-ছক্কা হাঁকাবেন। রানের ফলগুধারা বইবে। গ্যালারিতে বয়ে যাবে প্রাণের হিল্লোল।

তা না, মরা উইকেট। বল যাচ্ছে ঢিমে তালে ও স্লথ গতিতে। পিচে পড়ে আরো থেমে ব্যাটে যাচ্ছে। যে কারণে চটকদার শটস খেলা কঠিন হয়ে পড়েছে। এর পাশাপাশি বাউন্সেও অসামঞ্জস্যতা। কোনো বল লাফিয়ে উঠছে। আবার কোনোটা নিচু হয়ে আসছে।

সব মিলিয়ে ফ্রি স্ট্রোক প্লের কোনোই সুযোগ নেই। তাই বিগ স্কোরিং গেমের বদলে লো স্কোরিং ম্যাচ হচ্ছে। দর্শকরা খেলা দেখে আনন্দ পাচ্ছেন না। উইকেটের আচরণ নিয়ে মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসানও প্রশ্ন তুলেছেন। পাশাপাশি ভালো পিচে খেলা আয়োজনের দাবিও উঠেছে তাদের পক্ষ থেকে।

এদিকে শুধু উইকেট নয়, বিপিএল আয়োজক মহল ও দলগুলোর নতুন চিন্তার নাম ‘শিশির’। কার্তিকের একদম শেষভাগে হচ্ছে বিপিএল। দ্বিতীয় ম্যাচ শুরু হচ্ছে সন্ধ্যা ৭টায়। এক ঘণ্টার কিছু সময় যেতেই শিশির পড়া শুরু হচ্ছে। রাত সাড়ে ৮টার পর থেকে শিশির আরো বাড়ে। ৯টা নাগাদ মাঠ ভিজে একাকার।

তাতে পেসারদের খানিক সুবিধাই হচ্ছে। বল স্কিড করছে। পিচ পড়ে একটু দ্রুত ব্যাটে চলে আসছে; কিন্তু চরম সমস্যা হচ্ছে স্পিনারদের। ভেজা আউটফিল্ডে বলও ভিজে যাচ্ছে। রুমালে মুছেও শিশিরে ভেজা বল ঠিকমতো শুকানো সম্ভব হচ্ছে না। ভেজাই থাকছে।

আর সবার জানা, ভেজা বল স্পিনারদের গ্রিপ করাই দায়। যেখানে স্পিনাররা ঠিকমতো বল ধরতে পারছে না, সেখানে তাদের বোলিং কারিশমাও যাচ্ছে কমে। সাকিব আল হাসানের মতো বিশ্বমানের স্পিনারেরও আজ রাতে রাজশাহীর বিরুদ্ধে ভেজা বলে স্পিন করাতে সমস্যা হয়েছে।

ভেতরের খবর, শিশিরের আক্রমণ থেকে বাঁচতে ম্যাচ শুরুর সময় এগিয়ে নিয়ে আসার চিন্তা-ভাবনা চলছে। যতদূর জানা গেছে, আজ ঢাকা ও রাজশাহীর ম্যাচের পর পরই বিপিএল শীর্ষকর্তারা বৈঠকে বসেছিলেন। সেখানে শিশিরের হাত থেকে পরিত্রাণের উপায় খোঁজা হয়েছে। এক পর্যায়ে সবাই একমত হয়েছেন যে, খেলা এগিয়ে আনা হলে শিশির ভোগাবে কম।

নির্ভরশীল সূত্র জানিয়েছে, রাতের ম্যাচ এক ঘণ্টা এগিয়ে ৭টার বদলে ৬টায় শুরুর চিন্তা-ভাবনা হচ্ছে। খুব সম্ভবত চট্টগ্রাম পর্বের পর আগামী ২৫ নভেম্বর থেকে ঢাকায় যে শেষ পর্ব শুরু হবে, সেখানে রাতের খেলাটি সন্ধ্যা ৬টায় শুরুর ঘোষণা আসতে যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে হয়তো প্রথম ম্যাচ দুপুর ২টা থেকে আধ ঘণ্টা এগিয়ে দেড়টায় শুরু হবে।

এখন খেলা শেষ হচ্ছে গড়পড়তা ১০টা থেকে সোয়া ১০টায়। আর শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায়। সন্ধ্যা ৬টায় খেলা শুরু হলে অন্তত এক ঘণ্টা আগে খেলা শেষ হয়ে যাবে। তখন সর্বোচ্চ ঘণ্টাখানেক কিংবা তারও কিছু কম সময় শিশির পড়বে। বল সেভাবে ভিজে এখনকার মতো একাকার হবে না। তাতে করে স্পিনারদেরও অতো বেশি সমস্যা হবে না।-জাগো নিউজ