মেইন ম্যেনু

‘বিপিএলে ফিক্সিং’ হচ্ছে অভিযোগ গায়ক আসিফের

ashif1

কয়েকদিন ধরেই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চলতি আসরে ফিক্সিং নিয়ে অভিযোগ উঠেছে। যার প্রথমটি রংপুর রাইডার্সের ম্যানেজার সানোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে। এবার জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরও অভিযোগ তুলেছেন নিজ দল বরিশাল বুলসের দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারদের ওপর। তবে তার কাছে কোনো প্রমাণ নেই। বিসিবি এবং আইসিসির এন্টি করাপশন ইউনিটকে (আকসু) এ ব্যাপারে তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখতে বলেছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড পেজে আসিফ লিখেছেন, ‘ক্রিকেট ক্রিকেট করে আমার এক জীবন গেলো। বরিশাল বুলস কর্তৃপক্ষের উৎসাহ এবং ভালোবাসায় প্রায় আট বছর পর মাঠে গিয়েছি, অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করার মত নয়। দর্শক, উত্তেজনা, মাঠের পরিবেশ সব মিলিয়ে অদ্ভুত মূর্ছনা। শুধু বিপথগামী ডিজেগুলোর হিন্দি গানের যন্ত্রণাটা একটু পীড়া দিয়েছে, মেরুদণ্ড না থাকলে যা হয় আর কি।

সব নির্মল অনুভূতিগুলোতে পানি ঢেলে দিয়েছে সন্দেহ। ১৭, ১৮, ১৯ এবং ২০ নম্বর ওভারগুলোতে ব্যাটসম্যানরা হয়ে যায় প্রতিবন্ধী আর বোলাররা হয়ে যায় বাঘ। টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট জুয়ার অপর নাম। দর্শক হিসেবে মাঠে যাই খেলা দেখতে আর আমাদের নিয়ে খেলা হয় টেবিলে। সন্দেহ ঢুকেছে প্রেসবক্সেও।

অন্য কোন দলের কথা বলবো না। আমার দল বরিশাল বুলসের বিদেশি এবং দেশি খেলোয়াড়দের একটা অংশ ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িত আমি নিশ্চিত, প্রমাণ নেই। তবে বিসিবি এবং আকসু যদি তীক্ষ্ণ দৃষ্টি দেয় তাহলে অবশ্যই তারা প্রমাণ খুঁজে পাবেন, আমার বিশ্বাস। গরীব দল বুলস, ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের জন্য খারাপ লাগছে। তবে আমি কৃতজ্ঞ তাদের প্রতি। আত্মঘাতী গোলে হেরে যাওয়ার জন্য বরিশাল বুলসের জন্য সমবেদনা। ছিলাম আছি থাকবো ক্রিকেটের সঙ্গে। জয় হোক বাংলাদেশ ক্রিকেটের। অনেক হয়েছে, এবার একটু রেকর্ডিং এ মনোযোগ দেই।’

উল্লেখ্য, চলতি বিপিএলে বরিশাল বুলসের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন গায়ক আসিফ। বুলসের একাধিক ম্যাচে মাঠেও দেখা গেছে তাকে।