মেইন ম্যেনু

বিয়ের স্বপ্ন ধূলিস্যাৎ, হাসপাতাল মর্গে বাবার খোঁজে রুবি

kanpur-train20161120152711

বিয়ের স্বপ্ন ধূলিস্যাৎ হয়ে গেছে রুবি গুপ্তার (২০)। আর মাত্র দশ দিন বাকি তার বিয়ের। এর মধ্যেই জীবনে নেমে এলো অন্ধকার। ভারতে ইন্দোর-পাটনা এক্সপ্রেসের ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন রুবির বাবা।

চার ভাই-বোন এবং বাবার সঙ্গে আজমগরে যাওয়ার উদ্দেশে ট্রেনে উঠেছিলেন রুবি। কিন্তু শনিবার মধ্যরাতে ওই ট্রেনের বগি উল্টে কমপক্ষে ৯৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে আরো দুই শতাধিক মানুষ।

সামনের মাসের এক তারিখে রুবির বিয়ে হওয়ার কথা। আজমগরেই তার বিয়ে হওয়ার কথা। এ কারণে বাবা আর ভাই-বোনকে নিয়ে আজমগরে যাচ্ছিলেন রুবি। কিন্তু একটা দুর্ঘটনা তার সব আনন্দ কেড়ে নিলো। তার বাবা রাম প্রসাদ গুপ্তর কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

ওই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন রুবি। তিনি হাতে ব্যাথা পেয়েছেন। তার ভাই-বোনেরাও দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন।

ওই দুর্ঘটনা সম্পর্কে রুবি বলেন, আমি আমার বাবাকে খুঁজে পাচ্ছি না। আমি সবখানেই তাকে খুঁজেছি। অনেকেই আমাকে বলছেন হাসপাতাল কিংবা মর্গে বাবাকে খুঁজতে। কিন্তু আমি সত্যিই বুঝতে পারছি না কি করব? দুর্ঘটনায় তাদের সঙ্গে থাকা গহনা, কাপড় সব কিছুই হারিয়ে গেছে। তবে এসব কিছু নিয়ে ভাবছেন না তিনি। তার একটাই চিন্তা বাবাকে কোথায় পাবেন?

তিনি বলেন, ‘আমি জানি না বিয়েটা ঠিকঠাক হবে কিনা। শুধু এতটুকুই জানি বাবাকে খুঁজে বের করতে হবে। আমি সব জায়গায় তন্ন তন্ন করে খুঁজেছি। কিন্তু কোথাও পাচ্ছি না।’

ওই দুর্ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে ২ লাখ টাকা এবং গুরুতর আহতদের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন।