মেইন ম্যেনু

বেরোবিতে প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের ১৩ সদস্য বহিষ্কার

begum

বেরোবি প্রতিনিধি : সংগঠনবিরোধী কার্যকলাপের জন্য সংগঠনের ১৩ সদস্যের সদস্যপদ বাতিল করেছে রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী ও প্রগতিশীল শিক্ষকদের সংগঠন ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ’। বিভিন্ন সময়ে সংগঠনের নীতি ও আদর্শ পরিপন্থী কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ায় গঠনতন্ত্রের ধারা-৬ অনুযায়ী সংগঠনের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম স্টিয়ারিং কমিটি তাদের সদস্যপদ বাতিলের সুপারিশ করলে গত ৩১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত স্টিয়ারিং কমিটির সভায় বিষয়টি চূড়ান্তভাবে অনুমোদিত হয়েছে বলে সংগঠনটির সদস্য সচিব ড.গাজী মাজহারুল আনোয়ার স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো একটি বিবৃতিতে জানানো হয়। দুপুর ২টায় অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের আহবায়ক অধ্যাপক ড.সরিফা সালোয়া ডিনা।

সংগঠন থেকে সদস্যপদ বাতিলকৃত শিক্ষকরা হলেন- বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. সাইদুল হক (শিমুল মাহমুদ), সদস্য নম্বর-০০০৪, অধ্যাপক ড. নাজমুল হক (সদস্য নম্বর-০০০৯), একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টিমস্ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো: আমির শরীফ (সদস্য নম্বর- ০০১৩), বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. শফিকুর রহমান (শফিক আশরাফ) (সদস্য নম্বর- ০০১৫), ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজিয়া আফরিন (সদস্য নম্বর- ০০১৮), ইতিহাস ও প্রত্মতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো: গোলাম রব্বানী (সদস্য নম্বর- ০০১৯), ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক মোহসীনা আহসান (সদস্য নম্বর- ০০৩৮), ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সুবরণ চন্দ্র সরকার (সদস্য নম্বর- ০০৫৮), পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো: শাহজামান (সদস্য নম্বর-০০৫৯), বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. নিতাই কুমার ঘোষ (সদস্য নম্বর- ০০৭১), ইতিহাস ও প্রত্মতত্ত্ব বিভাগের প্রভাষক মো: আকতারুল ইসলাম (সদস্য নম্বর- ০০৭৩), লোক প্রশাসন বিভাগের প্রভাষক মো: জুবায়ের ইবনে তাহের (সদস্য নম্বর- ০০৭৫) এবং পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক বকুল কুমার চক্রবর্তী (সদস্য নম্বর- ০০৮০)।

সদস্যপদ বাতিলকৃত উল্লিখিত শিক্ষকবৃন্দের সঙ্গে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ এর কোনো সাংগঠনিক সম্পর্ক নেই বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।