মেইন ম্যেনু

বেরোবিতে শিবিরের সরকার বিরোধী পোস্টার নিয়ে তোলপাড় : ছাত্রলীগ নেতাদের ক্ষোভ

14826374_1609024169403564_1032986614_n

বেরোবি প্রতিনিধি : রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) ইসলামী ছাত্র শিবিরের ব্যানারে রাতের আঁধারে বিভিন্ন ভবনে সরকার বিরোধী পোস্টার লাগানোয় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ছাত্রলীগ নেতারা। একই সঙ্গে গভীর রাতে ক্যাম্পাসে বিকট শব্দে পর পর চারটি বিস্ফোরণ নিয়েও শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ক্যাম্পাসের ক্যাফেটেরিয়া, একাডেমিক ভবনসহ বিভিন্ন জায়গায় ছাত্র শিবিরের নামে সরকার বিরোধী পোস্টার লাগানো হয়। পোস্টারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে হাসিনা সরকার নিপাত যাক গণতন্ত্র মুক্তি পাক, ছাত্রলীগ সম্পর্কে ‘ছাত্রলীগের বিচার চাই নৈরাজ্যমুক্ত ক্যাম্পাস চাই’ এবং চলমান যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের বিষয়ে ‘যুদ্ধাপরাধীর বিচারের নামে প্রহসন বন্ধ কর, করতে হবে’ এরকম একাধিক শ্লোগান সম্বলিত পোস্টারে পুরো ক্যাম্পাস সয়লাব হয়ে উঠে। অবশ্য পোস্টার লাগানোর বিষয়টি জানাজানি হলে শুক্রবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর শাহীনুর রহমান কয়েকজন নিরাপত্তা কর্মী নিয়ে সরকার বিরোধী এসব পোস্টার ছিড়ে ফেলেন।

এদিকে একই রাতে ২:৪৮ মিনিট নাগাদ বিকট শব্দে পর পর চারটি বিস্ফোরণ শুনতে পায় ক্যাম্পাসের আবাসিক হলের শিক্ষার্থীরা।

তবে এগুলো কক্টেল কিংবা ভারী কোন অস্ত্রের ফায়ারিং করার শব্দ কিনা সে বিষয়ে কোন সুস্পষ্ট বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ক্যাম্পাস পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এরশাদ আলী বলেন, শব্দ পাওয়ার পরপরই আমরা স্পটে গিয়েছি কিন্তু কক্টেলের কোন প্রকার আলামত পাওয়া যায়নি। অন্যদিকে, ক্যাম্পাসের এমন ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান শিশির ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মাহমুদ হাসান এই প্রতিবেদককে জানান, বিষয়টি দু:খজনক। প্রশাসনের দূর্বলতার কারণে এরকম বার বার ঘটছে।’

বিষয়টি দ্রুত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে খতিয়ে দেখার আহবান জানান তারা। একই সঙ্গে এর সাথে কারা জড়িত থাকতে পারে এবং কাদের ছত্রছায়ায় এসব কর্মকান্ড চালানো হচ্ছে সে বিষয়ে খতিয়ে দেখতে ক্যাম্পাসের ছাত্রলীগ কর্মীদের সচেতন হওয়ার আহবান জানানো হয়।

সার্বিক বিষয়ে প্রক্টর শাহীনুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি জানার পর সাথে সাথে ব্যবস্থা নিয়েছি এবং বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।