মেইন ম্যেনু

বেড়েছে ডলারের দাম: ঢাকায় ১০০ রুপির নোট ২০০ টাকায় বিক্রি

ভারতীয় রুপি সংকটের প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার বাজারে। বতর্মানে যে সব বাংলাদেশী বিভিন্ন কারণে ভারতে যাচ্ছেন, তারা রুপির পরিবর্তে মার্কিন ডলার নিচ্ছেন।

বুধবার বিভিন্ন মানি এক্সচেঞ্জে প্রতি ডলার ২ টাকা বেড়ে ৮৪ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে।

তবে বিভিন্ন হাউসে ৫০০ ও ১০০০ রুপি নোট না চললেও ১০০ রুপির নোটের আরও সংকট তৈরি হয়েছে। বুধবার ১০০ রুপির নোট ২০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। স্বাভাবিক সময়ে এর দাম থাকে ১২০ টাকার নিচে।

এদিকে দেশে রুপি লেনদেন করে যারা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাদের দায় নেবে না বাংলাদেশ ব্যাংক। এ কারণে এক্সচেঞ্জ হাউসগুলোও বিপদে পড়েছে।

জানতে চাইলে বিজয় মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাফিজুর রশিদ ফকির জানান, রুপির কারণে গত কয়েক দিনে ডলারের দাম ১ থেকে ২ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

তিনি আরও বলেন, ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট অচল। এতে ১০০ ও তার নিচের নোটের আরও সংকট তৈরি হয়েছে দেশের মুদ্রাবাজারে। বতর্মানে ১০০ রুপির নোট কিনতে ২০০ টাকা লাগে। বড় কয়েকটি হাউসে তা পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, অবৈধ অর্থ প্রবাহ বন্ধ করতে গত ৮ নভেম্বর ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। বিপরীতে নতুন করে বাজারে ৫০০ ও ২০০০ রুপির নোট ছাড়ে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরবিআই। এজন্য বদলে নিতে হচ্ছে পুরনো নোট।