মেইন ম্যেনু

বোলিং নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেলেন হাফিজ

২০১৫ সালের জুলাইতে গল টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বোলিং করতে গিয়েই অবৈধ অ্যাকশনের জন্য অভিযুক্ত হন মোহাম্মদ হাফিজ। দুই বছরের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মত অবৈধ অ্যাকশনের জন্য অভিযুক্ত হওয়ার কারণে পাকিস্তানি এই অলরাউন্ডারকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে ইন্টারন্যাশন্যাল ক্রিকেট কাউন্সিল।

অবশেষে ব্রিসবেনের ন্যাশনাল ক্রিকেট সেন্টারে পরীক্ষা দেয়ার পর হাফিজের বোলিং অ্যাকশন বৈধ বলে ঘোষণা করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখন থেকে নিয়মিত বোলিং করতে পারবেন পাকিস্তানি এই অলরাউন্ডার।

আইসিসি জানিয়েছে, ব্রিস ন্যাশনাল ক্রিকেট সেন্টারে দেওয়া হাফিজের পরীক্ষায় দেখা গেছে বোলিংয়ের সময় তার কনুই ১৫ ডিগ্রির মধ্যেই থাকছে। এ কারণেই তার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছে। তবে, একই সঙ্গে হাফিজকে সতর্কও করে দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে যদি পাকিস্তানি এই অলরাউন্ডার ফের অবৈধ অ্যাকশনে বোলিং করেন, সেক্ষেত্রে আম্পায়াররা তার ব্যাপারে আবারও রিপোর্ট করতে পারবেন।

২০১৫ সালের জুলাইয়ে এক বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলিংয়ের ওপর নিষিদ্ধ হওয়া হাফিজ মেয়াদ শেষ হওয়ার পর পুনঃপরীক্ষার আবেদন করেন। গেল ১৭ নভেম্বর ব্রিসবেন ন্যাশনাল ক্রিকেট সেন্টার দেওয়া এই পরীক্ষা শেষে তার বোলিং অ্যাকশন বৈধ বলে ঘোষণা দেয় আইসিসি।