মেইন ম্যেনু

ব্যক্তিগত গাড়িতে সেবা দিতে পারবে না উবার

uber-cant-provide-service-in-privet-car_0

দেশের দেশের প্রচলিত আইন ও বিধি অনুযায়ী কোন ব্যক্তিগত গাড়িতে সেবা দিতে পারবে না স্মার্টফোন অ্যাপভিত্তিক অন ডিমান্ড কার সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান উবার।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি(বিআরটিএ)এর চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

আজ দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁয়ে বিআরটিএ সদর দপ্তরে উবারের দেশীয় প্রতিনিধিদের সঙ্গে বিআরটিএ কর্মকর্তাদের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে নজরুল ইসলাম বলেন, কোনো ব্যক্তিগত গাড়িতে উবার সেবা দিতে পারবে না। উবারের অ্যাপ বন্ধে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

তিনি আরও বলেন, নিজেদের কার্যক্রম, অবস্থান ও পরিকল্পনা নিয়ে তিন সপ্তাহের মধ্যে আবেদন করবে উবার। সেই আবেদন বিবেচনা করে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত দেবে বিআরটিএ।

উবার ছাড়াও বিআরটিএ সদর দপ্তরে উপস্থিত হয়েছিল আরেক স্মার্টফোন অ্যাপভিত্তিক মোটরবাইক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান শেয়ার অ্যা মোটরসাইকেল (স্যাম)।

এর আগে শনিবার বনানীর কাকলী বাসস্ট্যান্ডে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে ‘সড়ক নিরাপত্তা ক্যাম্পেইনে’ বলেন, উবার নিষিদ্ধ করা বিআরটিএ বা সরকারের উদ্দেশ্য নয়। তবে উবার বা এ ধরনের যে কোনো সার্ভিস সহায়ক অ্যাপ ব্যবহার করে সহজে ট্যাক্সি ক্যাব ব্যবহার করার ক্ষেত্রে যাতে দেশের প্রচলিত আইন ও বিধি অনুসৃত হয় তা দেখা সরকারের দায়িত্ব। যারা উবার নিয়ে এসেছে, তারা সরকারের কাছে এটি পরিচালনায় অনুমতি নেয়নি। একটি নিয়মের মধ্য দিয়ে এটিকে জনগণের সেবায় আনতে হবে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে চালু হওয়ার তিন দিনের মধ্যে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে উবারের সেবাকে অবৈধ ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ)। শুক্রবার প্রকাশিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিআরটিএ তথা সরকারের অনুমোদন ব্যতিত কোনো ট্যাক্সিক্যাব সার্ভিস পরিচালনা করা সম্পূর্ণ বেআইনি, অবৈধ ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। তাই অনুমতি না থাকায় উবারের এ ধরনের পরিবহন সেবা অবৈধ। আর উবারের মাধ্যমে ভাড়ায় যাত্রী পরিবহন করলে চালক ও গাড়ির মালিক-দুই পক্ষের বিরুদ্ধেই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।