মেইন ম্যেনু

ব্রিটিশ রানীর কুকুর খায় রুপার থালায়

ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের পোষা কুকুর খায় রুপার থালায়। অবাক হওয়ার কিছু নেই। রানির শখ-আহ্লাদে কেই বাধা দেয়- এত বড় বুকের পাটা কার!

রানির সব সময়ের সঙ্গী এখন চারটি কুকুর। এরাও রাজপরিবারের সদস্যদের মতো আদর-সমাদর পায়। খাওয়া-দাওয়ায় কোনো কমতি নেই। রাজকীয় মেন্যু। খরগোশের রোস্ট কুকুরগুলোর খুব পছন্দের। রুচি পাল্টাতে মুরগির রোস্টও দেওয়া হয়। আহা রে! আহা রে!
ছোটবেলা থেকেই কুকুরদের ভক্ত ছিলেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। তার ১৮তম জন্মদিনে তাকে একটি কুকুর উপহার দেন তার বাবা চতুর্থ জজ ও রানি এলিজাবেথ। সেই থেকে এ পর্যন্ত রানি ৩০টির মতো কুকুর পুষেছেন। সবগুলোরই রাজভাগ্য। রানির কুকুর বলে কথা!
রাজকুকুরদের সেবাযত্নের যেমন কমতি নেই তেমনি স্বাস্থ্য ভালো রাখতে নিয়মিত এগুলোকে হার্বাল ওষুধ খাওয়ানো হয়। বিভিন্ন থেরাপি দেওয়া হয়। এ জন্য নির্দিষ্ট চিকিৎসকও আছেন।

বর্তমানে চারটি কুকুর রানিকে ঘিরে থাকে। কখনো কখনো রানি নিজেই এগুলোর সেবা করেন। গোসল করান, খাইয়ে দেন। এমনকি মাথায় হাত বুলিয়ে ঘুমও পাড়িয়ে দেন। আর যেসব রাজকীয় বিছানায় তারা থাকে, তা রাজপরিবারের সদস্যদের চেয়ে কম নয় বৈকি! রানি যেখানে যান কুকুরগুলো সেখানে নিয়ে যাওয়া হয়। তাদের জন্য আলাদা বন্দোবস্ত থাকে।