মেইন ম্যেনু

ভারতীয় ভক্তের কাণ্ডে চমকে গেলেন তিশা

ঢাকার মগবাজার এলাকায় নাটকের শুটিং করছিলেন মডেল ও অভিনেত্রী তিশা। এই স্পটে গতকাল রোববার এসে হাজির হন ভারতের কলকাতার একজন প্রকৌশলী। তিনি এসে তাঁর বন্ধুর পক্ষ হয়ে তিশাকে একটি পেইন্টিং উপহার দেন। কলকাতার একজন ভক্তের কাছ থেকে পাওয়া এমন উপহারে চমকে যান জনপ্রিয় এই মডেল ও অভিনেত্রী।

সম্প্রতি ‘ডুব’ সিনেমার সম্পাদনার কাজে নির্মাতা স্বামী মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর সঙ্গে ভারত গিয়েছিলেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। আজ সোমবার দুপুরে ফেসবুকে ভারত ভ্রমণ ও সেদেশীয় ভক্তের মজার কাণ্ড শেয়ার করেন তিশা।

তিশা বলেন, ‘ভারতে আমাদের টেলিভিশন চ্যানেল দেখা যায় না। তারপরও কিছুদিন আগে কলকাতা আর মুম্বাই গিয়ে এত মানুষের কাছ থেকে যে ভালোবাসা পেয়েছি, তা অবিশ্বাস্য লেগেছে। আমি এমনও দেখেছি, তাঁদের মোবাইলে আমাদের অনেক নাটক, সিনেমা, টেলিফিল্ম ও সিরিয়ালের ক্লিপিংসও সংগ্রহ করা আছে। নিজ চোখে না দেখলে এটা বিশ্বাস করা যেত না।’

ভক্তের কাছ থেকে পেইন্টিং উপহার পাওয়ার অনুভূতি জানতে আজ দুপুরে কথা হয় তিশার। তিনি বলেন, ‘ভিনদেশের কোনো ভক্তের কাছ থেকে এমন উপহার পেলে একজন অভিনয়শিল্পীর জীবনে আর কীই–বা দরকার। এর চেয়ে বড় ভালোবাসা আর কিছুই হতে পারে না। আমি সত্যিই অভিভূত। শুনেছি, এই ভক্ত আমার সঙ্গে দেখা করার জন্য আমার পরিচিতজনদের এমন কেউ নেই, যাঁদের সঙ্গে তিনি যোগাযোগ করেননি।’

ফেসবুক পেজে তিশা লিখেন, ‘সারপ্রাইজ দিলেন কলকাতার এক ইঞ্জিনিয়ার ভদ্রলোক অলোক দে। উনি নানান সূত্রে যোগাযোগ করে মগবাজারে আমার নাটকের শুটিং স্পটে আসেন। এসেই আমাকে এই পেইন্টিংটা গিফট করেন। তাঁর এক বন্ধুর আঁকা এই ছবিটা উনি সেই কলকাতা থেকে নিয়ে এসেছেন আমার জন্য। তাঁর কাছে নাকি আমার তিন শ ভিডিও আর ছয় শ এক্সপ্রেশন সেভ (অভিব্যক্তি সংরক্ষণ) করা আছে। ওয়াও, ভালোবাসার চেয়ে বড় কোনো গিফট (উপহার) নাই।’

টেলিভিশনের নিয়মিত এ অভিনেত্রীকে চলতি বছর দেখা গেছে ‘রানা পাগলা’ ও ‘অস্তিত্ব’ চলচ্চিত্রে। ছবি দুটিতে তাঁর বিপরীতে ছিলেন শাকিব খান ও আরিফিন শুভ। জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমার নাম ‘ডুব’। এতে তিনি অভিনয় করেছেন ভারতীয় অভিনেতা ইরফান খানের বিপরীতে।