মেইন ম্যেনু

মঙ্গলবার দিল্লি যাচ্ছেন পররাষ্ট্র সচিব

5646c8581187f6fe2ef3154155bffef4-581c61e007912

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিসেম্বরে ভারত সফর নিয়ে আলোচনার জন্য তিনদিনের সফরে দিল্লি যাচ্ছেন পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক। তিনি ৮ নভেম্বর দিল্লি যাবেন। এ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘ভারতের পররাষ্ট্র সচিব এস জয়শংকরের আমন্ত্রণে দিল্লি যাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর নিয়ে তার সঙ্গে আমার আলোচনা হবে।’

গত বছর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরের মূল আলোচনার বিষয়বস্তু ছিল কানেক্টিভিটি। এবার শেখ হাসিনার সফরের সময়ে মূল আলোচনার বিষয়বস্তু কী হবে, জানতে চাইলে শহীদুল হক বলেন, ‘এটি এখনও ঠিক হয়নি। আলোচনা চলছে।’

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘বাংলাদেশের কাছে অগ্রাধিকারের বিষয় হচ্ছে পানি। এবারও ঢাকা এ বিষয়ে জোর দেবে।’

ঢাকা সমগ্র অঞ্চলের নদী ব্যবস্থাপনা বা বেসিন ওয়াইড ম্যানেজমেন্টের পক্ষে| পানির সুষ্ঠু, টেকসই ও সর্বোত্তম ব্যবহারের জন্য আমরা আঞ্চলিকভাবে অর্থাৎ বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল ও ভুটানকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করতে চাই।’ তিনি বলেন, ‘ভরা মৌসুমে পানি ধরে রাখা, শুষ্ক মৌসুমে সেটি সরবরাহের জন্য আঞ্চলিক উদ্যোগ দরকার ও এর জন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।’

শুধু তাই নয়, ভুটান ও নেপালে জলবিদ্যুৎ উৎপাদন করে আঞ্চলিকভাবে সেটি বিক্রি করা সম্ভব বলে তিনি জানান।

প্রধানমন্ত্রীর দিল্লি সফরের সময়ে পানি ছাড়াও সীমান্ত হত্যা, কানেক্টিভিটি, বাণিজ্য ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।

নরেন্দ্র মোদির সফরের সময়ে তিনটি নতুন ক্ষেত্রে সহযোগিতার বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। ক্ষেত্র তিনটি হচ্ছে স্যাটেলাইট বা স্পেস, ব্লু ইকোনমি এবং নিউক্লিয়ার সহযোগিতা।

এবারেও নতুন ক্ষেত্র খোঁজার প্রয়াস থাকবে এবং উভয় পক্ষ একমত হলে সেটি বাস্তবায়ন করা হবে বলে ওই কর্মকর্তা জানান।