মেইন ম্যেনু

মমতার বিরুদ্ধে সমাবেশে থাকবেন ১০ হাজার আলেম

mamata-120161101094322

প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি- এমন অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামতে যাচ্ছেন ইমাম এবং মুয়াজ্জিনরা। রাজ্যের ইসলামপন্থী প্রায় ৪০টি সংগঠন মিলে আগামী ৮ নভেম্বর সমাবেশ করবে কলকাতার ধর্মতলায়। কমপক্ষে দশ হাজার আলেম ওই সভায় উপস্থিত থাকবেন বলে জানানো হয়েছে কলকাতার একটি সংবাদ মাধ্যমে খবরে।

২০১১ সালে ক্ষমতা লাভের পর রাজ্যের ইমাম এবং মুয়াজ্জিনদের জন্য যথাক্রমে আড়াই হাজার টাকা এবং এক হাজার টাকা করে ভাতা চালু করেছিলেন মমতা। এ বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক বিতর্কও কিছু কম হয়নি। অল বেঙ্গল মাইনরিটি ইয়ুথ ফেডারেশনের (এবিএমওয়াইএফ) সাধারণ সম্পাদক মহম্মদ কামরুজ্জামান এ বিষয়ে বলেছেন, ‘ইমাম এবং মুয়াজ্জিনদের সাম্মানিক হিসেবে যা টাকা দেওয়া হয় তা অনেক কম। গত পাঁচ বছরে তা বাড়ানো হয়নি।’

তিনি আরো বলেছেন, ‘মাঝে একটা সময় ছয় মাসের জন্য ভাতা বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু সেই টাকা কী হয়েছে তা কেও জানে না।’

মুখ্যমন্ত্রী হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের ইমামদের জন্য ‘নিজ জমি নিজ গৃহ’ প্রকল্পের মাধ্যমে জমি ও বাড়ি করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও তা বাস্তবায়িত হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন অনেক প্রবীণ ইমামেরা।

রাজ্যের ৫২ হাজার ইমামকে সরকারের তরফ থেকে যে ভাতা দেওয়া হয় সেই প্রক্রিয়াও এখন অনেক ধীর গতিতে চলছে বলে অভিযোগ করেছেন অল বেঙ্গল ইমাম এন্ড মুয়াজ্জিন সমিতির সভাপতি এটিএম রফিকুল হাসান।

ইমামদের মাসিক ন্যূনতম ২০ হাজার টাকা ভাতার দাবি করেছেন নাখোদা মসজিদের ইমাম শফিক কাসমি। তিনি বলছেন, ‘ইমামদের জন্য যে ২৫০০ টাকা দেওয়া হয়, সেটা খুবই কম। ইমামদের জন্য এটা অন্তত ২০ হাজার এবং মুয়াজ্জিনদের জন্য ১০ হাজার টাকা করা উচিৎ।’