মেইন ম্যেনু

জুয়ার নেশায় পড়ে সর্বশান্ত হচ্ছে গ্রামের সাধারণ মানুষ।

মাগুরায় ভাব গানের আড়ালে চলছে রমরমা জুয়ার আসর

মাগুরা প্রতিনিধি ॥ মাগুরা সদর উপজেলার ঘোড়ানাছ গ্রামে ভাব গানের আড়ালে চলছে রমরমা জুয়ার আসর। ভাব গান দেখতে এসে জুয়ার নেশায় পড়ে সর্বশান্ত হচ্ছে গ্রামের সাধারণ মানুষ। আর এ সুযোগে প্রতিরাতে জুয়ার আসর থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি প্রতারকচক্র।

সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, ঘোড়ানাছ মধ্যপাড়া এলাকায় করিম মন্ডল বাড়ির উঠানে ডেকরেটর দিয়ে ছোট একটি স্টেজ করেছেন। ওই স্টেজে প্রতিরাতে বসছে ভাব গানের আসর। কুষ্টিয়া থেকে আনা দু’জন শিল্পী এখানে গান পরিবেশন করছেন। আর এ গানের আড়ালে বাড়ির পাশের মাঠে একটি সামিয়ানা টানিয়ে সেখানে বাসানো হয়েছে একাধিক জুয়ার কোর্ট। যেখানে সারারাত চলছে জমজমাট জুয়ার আসর। গান শুনতে আসা গ্রামের সহজ সরল সাধারণ মানুষেরা লোভে পড়ে জুয়ার কোর্টে গিয়ে সর্বশান্ত হয়ে বাড়ি ফিরছেন।

স্থানীয় চা দোকানী সিরাজ মিয়া ও পাশের জগদল বাজারের ডেকরেটর ব্যবসায়ী দাউদ হোসেন জানান, এলাকায় ব্যাপক প্রচারণা চালিয়ে ঘোড়ানাছ গ্রামের জুয়াড়ি করিম মন্ডল নিজ বাড়ির ওঠানে বৃহস্পতিবার রাত থেকে সপ্তাহব্যাপী ভাব গানের আয়োজন করেছে। প্রকৃতপক্ষে গানের আড়ালে রাত ১০টা থেকে শেষ রাত পর্যন্ত এখানে চলে জুয়ার আসর। ১৫ বছর ধরে করিম মন্ডল এলাকায় এ ধরনের জুয়ার আসরসহ নানা ধরনের অসামজিক কাজ করে আসছে।

নাম প্রকাশে ইচ্ছুক মহম্মদপুর উপজেলার চর বড়রিয়া গ্রামের এক ব্যাক্তি জানান, গতরাতে তিনি গান শুনতে এসে লোভে পড়ে জুয়ার আসরে গিয়ে ২৮ হাজার টাকা হেরেছেন। তারা একসঙ্গে ৮ জন এসেছেন সকলেই জুয়া খেলে কম-বেশি টাকা খুইয়েছেন। তিনি জানান, রাত বাড়ার সাথে সাথে মাইক্রো, নসিমন, অটোরিক্সাসহ বিভিন্ন যানবাহনে চড়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ আসেন এ জুয়ার আসরে। লাখ-লাখ টাকার কারবার হয় জুয়ার কোর্টে।

স্থানীয় বাসিন্দা সালমা বেগম অভিযোগ করেন, প্রকাশ্যে জুয়ার আসরের কারণে এলাকার উঠতি বয়সের ছেলেরা নষ্ঠ হচ্ছে। জুয়ার অয়োজক করিম মিয়া ও তার সঙ্গীরা দাঙ্গাবাজ হওয়ায় গ্রামের কেউ ভয়ে প্রতিবাদ করতে সাহস করছে না। তাছাড়া প্রশাসনের সাথেও তার সম্পর্ক রয়েছে।

মাগুরা জেলা প্রশাসক মুহ. মাহবুবর রহমান জানান-ভাব গানের নামে জুয়া অভিযোগ পাওয়ার পর পরই শুক্রবার রাতে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়ারুল ইসলামের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে ভাব গানের নামে অবৈধ জুয়ার আড্ডা উচ্ছেদ করা হয়েছে। এছাড়া জুয়ার উদ্যোক্তা করিম মন্ডলকে আর্থিক জরিমানাকরা হয়েছে।