মেইন ম্যেনু

মিরাজকে দেখে অবাক হয়ে সাকিব বললেন, ‘তুমি এখানে?’

1478931361

সাকিবের ডায়নামাইটসের বিপক্ষে দারুণ পারফরম্যান্স করেছেন রাজশাহী কিংসের তরুণ অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। জয়ের নায়ক তিনি না হলেও ঢাকার দুইটি মূল্যবান উইকেট গেছে মিরাজের থলিতে। অধিনায়ক সাকিব আর সাঙ্গাকার উইকেটটি তুলে নিয়েছেন জাতীয় দলের এই বিস্ময়কর বালক।

আর তাই খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে মিরাজের প্রশংসা করছিলেন সাকিব। মজার ব্যাপার হলো, ওই সম্মেলনকক্ষেই ছিলেন মিরাজ। জাতীয় দলের সিনিয়র সতীর্থ আর বিপিএলে প্রতিপক্ষ ঢাকা ডায়নামাইটসের অধিনায়ক সাকিবের কণ্ঠে প্রশস্তিগাথা শুনে মিষ্টি হাসি বিস্ময়-বালকের মুখে।

সাকিব মঞ্চ ছেড়ে নামলেন আর মিরাজ উঠলেন—দেখা হয়ে গেল দুই অলরাউন্ডারের। ২২ গজেও অবশ্য দুজন মুখোমুখি হয়েছিলেন। সেখানে মিরাজই জিতেছেন। ১৯ বছর বয়সী অফ স্পিনারের বলে সাকিব স্টাম্পড হয়ে যান শূন্য রানে। মিরাজকে সংবাদ সম্মেলনকক্ষে দেখে বাঁহাতি অলরাউন্ডার খানিকটা অবাক, ‘তুমি এখানে!’

ঢাকার বিপক্ষে রাজশাহী কিংসের ৬ উইকেটের জয়ে মিরাজ আসল নায়ক নন। অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে ম্যাচসেরা সামিত প্যাটেল। তবে ঢাকার বিপক্ষে অসাধারণ বোলিং করেছেন মিরাজ। প্রতিপক্ষের দুই সেরা ব্যাটসম্যান কুমার সাঙ্গাকারা ও সাকিবকে তিনিই ফিরিয়েছেন। দুজনই বিশ্ব ক্রিকেটের বড় নাম। দুটি উইকেটই মহামূল্যবান। তবে মিরাজের কাছে সাঙ্গার উইকেটটিই সেরা মনে হয়েছে, ‘অবশ্যই সাঙ্গাকারার উইকেট সেরা। সে কিংবদন্তি ক্রিকেটার। ভালো লেগেছে তাঁকে আউট করে। আমাকে সে দেখেশুনেই খেলেছিল। তারপরও ভালো জায়গায় বোলিং করায় আউট হয়ে গেছে।’

মিরাজের অসাধারণ বোলিং নৈপুণ্য দেখা গেছে ইংল্যান্ডের সঙ্গে টেস্ট সিরিজে। কাল বিপিএলেও তার খানিকটা ঝলক দেখা গেছে। সাকিবের কণ্ঠে তাই মিরাজ-স্তুতি, ‘আমাদের দেশের স্পিনাররা সব সময়ই একটু সুবিধা পায়। তবু ভালো জায়গায় বোলিং করা গুরুত্বপূর্ণ। সে সেটিই করে গেছে। আমরা জানি, সে কত ভালো বোলিং করতে পারে। সে এখন বাংলাদেশের অন্যতম সেরা অফ স্পিনার। আর কী বলার আছে! ভালো করছে। আরও ভালো করবে সামনে।’