মেইন ম্যেনু

মিরাজকে নিয়ে জিওফ বয়কটের মুগ্ধতা

4362c704f7f4a989873f49d758d5666a-thams

জিওফ বয়কট অবাক হননি মোটেও। ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের কাছে ইংল্যান্ডের হার ক্রিকেট বিশ্বকে নাড়িয়ে দেওয়ার মতো কিছু—এমনটিও ভাবছেন না সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক। বরং তাঁর মতে, বাংলাদেশ যেভাবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে উন্নতি করছে, তাতে এটি হওয়ারই ছিল। বয়কট বরং মুগ্ধ আর বিস্মিত বাংলাদেশের অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুই টেস্টে ১৯ উইকেট পাওয়া এই তরুণের উত্থানকে ক্রিকেটের জন্য দারুণ একটা ব্যাপার বলে মনে করেন বয়কট।

ঢাকা টেস্ট জয়ের সব কৃতিত্ব বাংলাদেশকেই দিতে চান ইংল্যান্ডের সাবেক এই ওপেনিং ব্যাটসম্যান। নিজ দেশের পরাজয়ে কোনো অজুহাত দাঁড় করাতে চাননি। স্পষ্ট করেই বলেছেন, টেস্টটা ইংল্যান্ডের হারা উচিত হয়নি। কিন্তু সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স বিশ্লেষণ করলে দেখবেন, তারা উঠে আসছে। সুতরাং, একদিন না একদিন এটা (বড় দলগুলোকে টেস্টে হারানো) হওয়ারই ছিল।

বয়কটের সবচেয়ে বেশি মুগ্ধতা মিরাজকে নিয়ে, ‘মেহেদীর মধ্যে বাংলাদেশ দারুণ একজন উইকেটশিকারি পেয়ে গেছে। সে যদি এভাবে আমাদের বিস্মিত করতে থাকে, সেটা ক্রিকেটের জন্যই দারুণ ব্যাপার হবে। তাঁর মতো তরুণ প্রতিভাই দরকার আমাদের।’

বাংলাদেশের বিপক্ষে স্পিনে নাস্তানাবুদ হয়েছে ইংল্যান্ড। ভারতের বিপক্ষে সিরিজে তাই রবিচন্দ্রন অশ্বিন কিংবা রবীন্দ্র জাদেজারা ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের নিয়ে খেলবেন—এটাই ধারণা করা হচ্ছে। তবে বয়কট ব্যাপারটা দেখেছেন অন্য চোখে। বাংলাদেশের অভিজ্ঞতা ইংল্যান্ডকে ভারতের মাটিতে ভালো খেলতে সাহায্য করবে বলেই মনে করেন বয়কট, ‘বাংলাদেশে বেশ ভালো সময় কাটিয়েছে ইংল্যান্ড। সুতরাং, ভারতের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়াটা তাদের জন্য কঠিন হবে না।’

তবে সিরিজে ভারতকেই এগিয়ে রাখতে চান তিনি, ‘এটি কোনো ঘোড়ার দৌড় নয়। ঘোড়ার দৌড়ে যেমন বিজয়ী কোন ঘোড়া হবে, এটি বুঝতে অসুবিধা হয়, ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজটা তেমন কিছু নয়। ভারত ঘরের মাঠে খেলছে। সুতরাং, সবাই জানে এখানে কারা ফেবারিট। ইংল্যান্ডের কাছে হারতে হলে ভারতকে খুবই বাজে ক্রিকেট খেলতে হবে।’ সূত্র: মিড ডে।