মেইন ম্যেনু

মিশরে প্রাচীন নগরীর সন্ধান

221054_92636199_c45e2547-7969-46f1-bcde-2af01eb80c56

মিশরে প্রত্নতাত্ত্বিকরা সাত হাজার বছরের পুরনো একটি প্রাচীন নগরীর সন্ধান পেয়েছেন। আবিষ্কৃত নগরীটিতে বাড়িঘর, সরঞ্জাম, মাটির তৈরি জিনিসপত্র ইত্যাদি রয়েছে। এছাড়াও এখানে অনেকগুলো কবরেরও সন্ধান পাওয়া গেছে।

নগরীর অবস্থান নীল নদের কাছে আবিদোসে সেটি দ্য ফার্স্ট মন্দিরের পাশে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নতুন আবিষ্কৃত ১৫টি কবর ইঙ্গিত দেয় যাদেরকে এখানে সমাহিত করা হয়েছিল তারা সমাজের উঁচু শ্রেণীর লোক ছিলেন।

ধারণা করা হচ্ছে যে নগরীটিতে গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তা ও সমাধি নির্মাতারা থাকতেন।

প্রাচীন মিশরীয় সভ্যতার উন্মেষকালে নগরীটি সমৃদ্ধি লাভ করে।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে, এই আবিষ্কারের ফলে মিশরের পর্যটন শিল্পের প্রসার ঘটবে।

বর্তমানে দেশটির পর্যটন শিল্পে মন্দা অবস্থা চলছে। ২০১১ সালে মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারকের পতনের পর থেকে এই শিল্পে ধস নামে।

প্রতœতাত্ত্বিকরা নগরীর মধ্যে বেশ কয়েকটি ভবন, বিভিন্ন ধরনের মাটির তৈরি পণ্য এবং ধাতু ও পাথরের তৈরি দ্রব্যসহ বেশ কিছু জিনিষ আবিষ্কার করেছেন।

ধারণা করা হচ্ছে, এই স্থানটিতে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তা ও সমাধি নির্মাণকারীদের বাড়ি ছিল। তারা রাজকীয় সমাধি নির্মাণ করেন। সমাধিগুলো পবিত্র নগরী আবিদোনের কাছে অবস্থিত। স্থানটিতে অনেক মন্দির ছিল।

কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ইজিপ্ট ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানিয়েছে, কোন বিদেশী গ্রুপ নয়, মিশরের পুরাতত্ত্ব মন্ত্রণালয়ের একটি প্রত্নতাত্ত্বিক মিশন নগরীটি আবিষ্কার করে।