মেইন ম্যেনু

মুশফিক-নাফীসের হাফ সেঞ্চুরিতে বরিশালের রান উৎসব

154720mushfiq_kalerkantho_pic

অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম এবং শাহরিয়ার নাফীসের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে রান উৎসবে মাতল বরিশাল বুলস। এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপদে পড়ে মুশফিকুর রহিমের দল। ২১ রানের মধ্যে ফিরে যান দুই ওপেনার। এরপর দেখা গেল ব্যাটিং ঝলক। বিপিএলের চতুর্থ আসরে প্রথমবারের মতো শতাধিক রানের পার্টনারশিপ দেখল হোম অব ক্রিকেট!

বোলারদের স্বর্গরাজ্য হয়ে ওঠা মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে বেলা ২টায় শুরু হওয়া ম্যাচে প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলেই উমর আকমলের হাতে ধরা পড়েন ওপেনার দিলশান মুনারবীরা (০)। বোলার ফরহাদ রেজা। এরপর ক্রিজে আসেন শাহরিয়ার নাফীস। জুটি জমে না উঠতেই আবারও ফরহাদ রেজার আঘাত। তার দ্বিতীয় শিকার হয়ে নুরুল হাসানের হাতে ক্যাচ দেন আরেক ওপেনার দাওয়িদ মালান (১৩)। দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে বরিশাল বুলস।

মালানের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। শাহরিয়ার নাফীসকে সাথে নিয়ে তৃতীয় উইকেট জুটিতে দলের বিপদ সামাল দেন। আস্তে আস্তে হাত খুলে মারতে শুরু করেন দুজনই। দুজনই হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করেন। প্রথমে ধীরে খেললেও হাফ সেঞ্চুরির দৌড়ে এগিয়ে যান শাহরিয়ার নাফীস। ৩৮ বলে হাফ সেঞ্চুরি পুরণ করার পর ৪৪ বলে ৬৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে ড্যারেন স্যামির বলে নুরুল হাসানের হাতে ধরা পড়েন। ইনিংসটিতে তিনি ৪টি চার এবং ৪টি বিশাল ছক্কা হাঁকিয়েছেন।

নাফীসের বিদায়ের পর মুশফিকের সঙ্গী হন থিসারা পেরেরা। মুশফিক তখন ৪৮ রানে অপরাজিত। অতঃপর ধীরে ধীরেই হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করলেন অধিনায়ক। ৪০ বলে হাফ সেঞ্চুরি করার পথে তিনি ৩টি চার এবং ২টি ছক্কা হাঁকান। হাফ সেঞ্চুরির পর আরও ভয়ংকর হয়ে ওঠেন মুশফিক। আরও ১টি চার এবং ২টি ছক্কা যুক্ত হয় তার ইনিংসে। শেষ পর্যন্ত ৫২ বলে ৮১ রানে অপরাজিত থাকেন বরিশাল অধিনায়ক। শেষ ওভারে অবশ্য রান আউট হয়ে যান পেরেরা (১১)। ২০ ওভার শেষে বরিশালের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ১৯২।

উল্লেখ্য, নিজেদের প্রথম ম্যাচেও হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন এই দুজন। তবে দলকে জেতাতে পারেননি। প্রথম ম্যাচে অপরাজিত ৫০ এবং পরের ম্যাচে ৩৩ রান করেন বরিশাল অধিনায়ক। আজকের জন্য আরও কী চমক অপেক্ষা করে আছে তা দেখার অপেক্ষা।

দিনের অপর খেলায় মুখোমুখি হবে মাশরাফি বিন মুর্তজার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবং মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটান্স। খেলাটি শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টা থেকে। খেলা দুটি সম্প্রচার করবে চ্যালেন নাইন এবং সনি সিক্স।