মেইন ম্যেনু

মোদীর বোনের সঙ্গে নীতীশ কুমারের বিয়ে?

2345sas

‘ডিমানিটাইজেশন’ বা ‘নোটবাতিল’ নিয়ে নীতীশ কুমার যেভাবে নরেন্দ্র মোদী সরকারকে সমর্থন করছেন তাতে নাকি বিজেপি-র সঙ্গে জেডিইউ-এর ব্যবধান কমছে। তামাম বিহারেও এই খবর চাউর হয়েছে। ইতিমধ্যে বিহার বিজেপি নোটবাতিল ইস্যুতে নীতীশের এই সমর্থনকে হাতিয়ারও করেছে।

বিহার বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি সুশীল মোদী সম্প্রতি জেডিইউ এবং আরজেডি-র মধ্যে থাকা জোট সম্পর্ককেও খতিয়ে দেখতে নীতীশ কুমারকে পরামর্শ দেন। আরজেডি সুপ্রিমো লালুপ্রসাদ এবং তাঁর স্ত্রী রাবড়ির গায়ে যে দুর্নীতির কালি লেগে আছে তাতে নীতীশের উজ্জ্বল ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন সুশীল মোদী।

এই নিয়ে সম্প্রতি, লালুপত্নী এবং বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী রাবড়িদেবীকে সংবাদমাধ্যম প্রশ্ন করলে ক্ষিপ্ত হয়ে পড়েন তিনি। রাবড়ি বলে বসেন, ‘মোদী যদি মনে করেন নীতীশের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে, তাহলে নিজের বোনের সঙ্গে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীর বিয়ে দিচ্ছেন না কেন? এতে, নীতীশের ভাবমূর্তি ঠিক থাকবে।’ ২০০৭ সালে নীতীশ কুমারের স্ত্রী মঞ্জু কুমার সিংহের মৃত্যু হয়। নীতীশ ও মঞ্জুর একটি ছেলেও আছে। তাঁর নাম নিশান্ত। স্ত্রী বিয়োগের পর দ্বিতীয় বিয়ে করেননি বিহারের মুখ্যমন্ত্রী।

মোদীর বোনের সঙ্গে নীতীশ কুমারের বিয়ে দেওয়ার মন্তব্য করে বিপাকে পড়ে যান রাবড়িদেবী। সোশ্যাল মিডিয়ায় রাবড়ির এই মন্তব্যটি ভাইরাল হয়ে ওঠে। গোটা ঘটনায় ক্ষিপ্ত রাবড়ির দাবি, সুশীল মোদীর সঙ্গে রাজনৈতিক বিরোধিতা থাকলেও তাঁদের সম্পর্ক বৌদি-দেওরের। সুশীলকে নিয়ে মসকরা করার অধিকার কি তাঁর নেই? রাবড়ির অভিযোগ তাঁর মন্তব্যকে বিকৃত করা হয়েছে। সুশীল মোদীর নীতীশ কুমারকে যখন এতই পছন্দ তাহলে তিনি নীতীশকে কেন কোলে করে নিয়ে যাচ্ছেন না একথাই নাকি তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন বলে দাবি করেন রাবড়ি!