মেইন ম্যেনু

যার ছোঁয়ায় চিরবিদায় হবে অবাঞ্ছিত লোম!

lom_32447_1480499470

নারী ও পুরুষ উভয়ই অবাঞ্ছিত লোম সমস্যায় ভুগে থাকেন। সাধারণত ঠোঁটের ওপর, নাকের ভিতরে, কপাল অথবা গালে অবাঞ্ছিত লোম দেখা দেয়। এতে আপনাকে দেখতেও বিশ্রী লাগে এবং আপনি সবার সামনে বের হতে বিব্রত বোধ করেন।

বিউটি টিট্রমেন্টের মাধ্যমে এ সমস্যা সমাধান করা যায়, তবে এর জন্য সময় বের করা ও অর্থ খরচ খুব কষ্টদায়ক।

এছাড়া অধিকাংশ ক্ষেত্রে এই টিট্রমেন্টগুলো সাময়িকভাবে লোম দূর করে। অনেকে স্থায়ী সমাধান পেতে লেজার ট্রিটমেন্টের শরণাপন্ন হয়ে থাকেন। তবে ব্যয়বহুল এই ট্রিটমেন্টটি সবাই পক্ষে করা সম্ভব নয়।

তাই বলে অবাঞ্ছিত লোম নিয়ে বসে থাকবেন তাতো নয়! তাহলে উপায়? আরে এতো চিন্তা করছেন কেন? এর সহজ উপায় আছে আপনার ঘরেই!

তাহলে দেরি কেন? আসুন জেনে নিই কীভাবে ঘরোয়া উপায়ে চিরবিদায় দিতে পারবেন অবাঞ্ছিত লোমকে।

মসুর ডালের প্যাক তৈরির প্রস্তুত প্রণালী ও ব্যবহার

আধা কাপ মসুরির ডাল বেটে গুঁড়ো করে নিন। এবার দুই টেবিল চামচ মসুরির ডাল গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ মুলতানি মাটি, এক চা চামচ চন্দনের গুঁড়ো, দুই টেবিল চামচ বিশুদ্ধ মধু ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার পেস্টটি ম্যাসাজ করে ত্বকে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

বেসন প্যাকের প্রস্তুত প্রণালী ও ব্যবহার

দুই টেবিল চামচ বেসন, এক টেবিল চামচ দুধের সর, দুই টেবিল চামচ চন্দন, এক টেবিল চামচ সরিষার তেল, এক টেবিল চামচ গোলাপ জল এবং এক চিমটি হলুদের গুঁড়ো মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন।

ত্বকের যেসব স্থানে অবাঞ্ছিত লোম রয়েছে, সেখানে এই প্যাকটি ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি সপ্তাহে কয়েকবার ব্যবহার করতে পারবেন।